জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের চলমান পরীক্ষাগুলো দ্রুত শেষ করার দাবিতে রাজশাহীতে মানববন্ধন ও প্রতীকী পরীক্ষা দিয়েছেন শিক্ষার্থীরা। রোববার বেলা ১১টার দিকে নগরীর সাহেববাজার জিরোপয়েন্টে জড়ো হয়ে এসব কর্মসূচি পালন করেন শিক্ষার্থীরা।

তারা জানান, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন চতুর্থ বর্ষের ফাইনাল পরীক্ষা চলছিল। তিনটি কোর্সের পরীক্ষা অবশিষ্ট থাকতেই কর্তৃপক্ষ স্থগিত করে। এতে সেশনজট তৈরি হবে। আগেও টানা দেড় বছর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় তারা পিছিয়ে গেছে। এতে অনেকেই হতাশাগ্রস্ত হয়ে আছেন। অনেকেই নিজেকে পরিবারের বোঝা ভাবছেন। এ অবস্থায় শিক্ষার্থীরা ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে পরীক্ষার রুটিন প্রকাশের দাবি জানিয়েছেন। দাবি মানা না হলে সোমবার একই স্থানে আবারও মানবন্ধনসহ রাজশাহীতে অবস্থিত জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আঞ্চলিক অফিস ঘেরাও করার ঘোষণা দেন তারা।

রাজশাহী কলেজের বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থী আব্দুর রহিম বলেন, ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে স্থগিত হয়ে যাওয়া পরীক্ষার রুটিন প্রকাশ করা না হলে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আঞ্চলিক অফিস ঘেরাও করা হবে। 

রাজশাহী কলেজের আরেক শিক্ষার্থী শফিকুল ইসলাম বলেন, আমাদের এক দফা, এক দাবি। পুনরায় পরীক্ষা চালু করতে হবে। আমরা ২০১৯ সাল থেকে চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী হয়ে আছি। আমরা মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়েছি। দ্রুত সময়ে আমাদের পরীক্ষা শেষ করতে হবে।

রাজশাহী মহিলা কলেজের শিক্ষার্থী সুমাইয়া সুলতানা বলেন, সকল শিক্ষার্থী স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষা দিতে প্রস্তুত। দেশের সব কিছুই চলমান আছে, শুধু আমাদের পরীক্ষা স্থগিত করে দেওয়া অন্যায়।