পঞ্চগড়ের বোদায় কবরস্থান থেকে কবর খুঁড়ে ১৩টি কঙ্কাল চুরি হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন গ্রামবাসী। রোববার দিবাগত রাতে বোদা উপজেলার চন্দনবাড়ি ইউনিয়নের সরকার পাড়া দলুয়ার দীঘি কবরস্থান থেকে এসব কঙ্কাল চুরি হয়। 

এই ঘটনায় স্থানীয়দের মাঝে উদ্বেগ দেখা দিয়েছে। তদন্তের মাধ্যমে অপরাধীদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন তারা। 

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, মঙ্গলবার সকালে স্থানীয় কয়েকজন কবরস্থান এলাকায় গেলে কয়েকটি কবর খোঁড়া অবস্থায় দেখতে পান। পরে তারা স্থানীয় আরও কয়েকজনকে খবর দেন। স্থানীয়দের ধারণা, কঙ্কাল চুরি করতে এসব কবর খুঁড়েছে কেউ। দুই বছর আগে মৃত্যু হয়েছে এমন ব্যক্তিদের কবরও খোঁড়া হয়েছে। খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, পুলিশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

বোদা চন্দনবাড়ি এলাকার মকছেদ আলী (৩৭) বলেন, সকালে স্থানীয় একটি শিশু কবরস্থানে ছাগল বাঁধতে এসে একটি কবর খোঁড়া অবস্থায় দেখতে পায়। পরে সে বাড়ি গিয়ে পরিবারের সদস্যদের জানালে তাদের চিৎকারে সবাই ছুটে আসে। এ সময় ১৩টি কবর খোঁড়া এবং সেগুলোতে কঙ্কাল নেই দেখা গেছে। 

চন্দনবাড়ি ইউপি চেয়ারম্যান মো. নজরুল ইসলাম বলেন, স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে যাই। তবে যেই এসব কাজ করুক না কেন, তাকে দ্রুত আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করছি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো সোলেমান আলী বলেন, চন্দনবাড়ি ইউনিয়নের সরকার পাড়া দলুয়ার দীঘি এলাকার কবরস্থান থেকে ১৩টি কঙ্কাল চুরির খবরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। যারা এই অপকর্মে জড়িত তাদের খোঁজে বের করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।