কক্সবাজার-১ আসনের সংসদ সদস্য জাফর আলমের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ উঠেছে। সরকারদলীয় এই এমপির নির্যাতনে যুবলীগ নেতা মোজাফ্‌ফর হোসেন পল্টু সপরিবারে চকরিয়া থেকে পালিয়ে রাজধানীতে অবস্থান করছেন বলে অভিযোগ তোলা হয়েছে। 

এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীসহ সংশ্নিষ্ট প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছে নির্যাতিত পরিবারটি।

মঙ্গলবার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) নসরুল হামিদ মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে নির্যাতিত পরিবারের পক্ষ থেকে এই অভিযোগ করা হয়। 

এ সময় লিখিত বক্তব্য উপস্থাপন করেন চকরিয়া উপজেলা যুবলীগের জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি মোজাফ্‌ফর হোসেন পল্টু। উপস্থিত ছিলেন পল্টুর মা আনোয়ারা বেগম, স্ত্রী নিশাত পারভীন ও শিশু ছেলেসহ পরিবারের সদস্যরা।

লিখিত বক্তব্যে মোজাফ্‌ফর হোসেন পল্টু বলেন, গত বছরের মে মাসে চকরিয়া পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী আলমগীর চৌধুরীর পক্ষে প্রচার-প্রচারণায় অংশ নিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু কক্সবাজার-১ আসনের এমপি জাফর আলম দলীয় প্রার্থীর বিপক্ষে অবস্থান নিয়ে আপন ভাতিজা যুবদল কর্মী জিয়াবুল হককে স্বতন্ত্র প্রার্থী করেন। 

তিনি অভিযোগ করেন, নির্বাচনে জিয়াবুল হক পরাজিত হলে এমপি তার (পল্টু) ওপর চরম ক্ষিপ্ত হন। এর জের ধরে এমপি জাফর আলম ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী তার ও পরিবারের সদস্যদের ওপর অত্যাচার-নির্যাতন শুরু করেন। উপর্যুপরি নির্যাতন এবং তাদের বসতভিটা ও লবন কারখানাসহ এক একর জায়গা দখল করে নেয় তারা।

তিনি বলেন, পরে প্রাণে মেরে ফেলার ভয় দেখিয়ে নানাভাবে তার ও তার পরিবারের ওপর অত্যাচার-নির্যাতন অব্যাহত থাকলে এক পর্যায়ে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে রাজধানীতে পালিয়ে আসতে বাধ্য হন তিনি। গত দেড় মাস ধরে ঢাকায় মানবেতর জীবনযাপন করছেন তিনি ও তার পরিবার। এই অবস্থায় এমপি জাফর আলম ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী যেকোনো সময় তার ও তার পরিবারের সদস্যদের জানমালের বড় ধরনের ক্ষতি করতে পারে। 

এ বিষয়ে স্থানীয় থানায় মামলা করার পরও কোনো প্রতিকার পাননি তিনি এমন অভিযোগও সংবাদ সম্মেলনে করেছেন পল্টু।

আনীত অভিযোগ অস্বীকার করে সংসদ সদস্য জাফর আলম সমকালকে বলেন, ‘মোজাফ্‌ফর হোসেন পল্টুর অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট। বরং এলাকায় পল্টুর বিরুদ্ধেই চাকরি দেওয়ার নামে বিভিন্ন লোকের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ রয়েছে। এসব কারণেই পল্টু ঢাকায় পালিয়ে থেকে উল্টো আমার বিরুদ্ধেই মিথ্যা অভিযোগ আনছেন। সংবাদ সম্মেলন করে মিথ্যা তথ্য দিয়ে আমার সম্মানহানি করায় আমি এখন পল্টুর বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে মামলা করব।’