নাটোরের গুরুদাসপুরে যৌতুক না পেয়ে স্ত্রীকে নির্যাতন ও বিকৃত যৌনাচারের অভিযোগে মুক্তার হোসেন নামের একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার এ নিয়ে গুরুদাসপুর থানায় মামলা হলে পৌর এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশ ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, দিনমজুর রাশিদুল ইসলামের মেয়ের সঙ্গে সাত মাস আগে মুক্তার হোসেনের বিয়ে হয়। বিয়ের সময় মুক্তারের দাবি অনুযায়ী যৌতুক দিতে পারেননি রাশিদুল। বিয়ের পর থেকেই মুক্তার স্ত্রীর ওপর শারীরিক, মানসিক ও যৌন নির্যাতন চালিয়ে আসছিলেন। গত রোববার রাতে মুক্তার বিকৃত যৌনাচার করায় তার স্ত্রী অসুস্থ হয়ে পড়েন। চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা গিয়ে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

মুক্তারের স্ত্রী জানান, যৌন নির্যাতনে নিষেধ করলে তার ওপর শারীরিক নির্যাতন চালানো হয়। স্বামীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চান তিনি। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক জানান, নববধূ বিকৃত যৌনাচারের আলামত নিয়ে চিকিৎসা কেন্দ্রে এসেছেন।

গুরুদাসপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল মতিন বলেন, মামলা দায়েরের পর মুক্তারকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে এবং বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে।