টাঙ্গাইলের সন্তোষে শামসুল হক খান নামে এক ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। 

সোমবার রাতে সন্তোষের বাগবাড়ির পুকুরপাড় থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। 

নিহতের বাড়ি ওই এলাকায়। পাশ্ববর্তী মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় সড়কে আসবাবপত্রের ব্যবসা করতেন শামসুল। 

মঙ্গলবার সকালে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতলে পাঠানো হয়েছে। 

সন্তোষ পুলিশ ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত ইনচার্জ এসআই মাজেদুর রহমান জানান, রোববার রাত ১০টার দিকে দোকান বন্ধ করে বাড়ির উদ্দেশে রওনা হন শামসুল। এর পর থেকে নিখোঁজ ছিলেন তিনি। তার মোবাইল বন্ধ ছিল। সোমবার রাত ৮টার দিকে দোকানের পাশেই পুকুরপাড়ে ঝোঁপের কাছে রক্তের দাগ দেখতে পেয়ে লোকজন পুলিশে খবর দেয়।

নিহতের বড় ভাই হাবিবুর রহমান খান বলেন, আমার ভাইয়ের কাছ থেকে এক ব্যক্তি দুই লাখ টাকা ধার নিয়েছিল। ওই পাওনা টাকা দাবি করলে তাকে বিভিন্ন সময় হুমকি দেওয়া হতো। ওই ব্যক্তিই শামসুলকে হত্যা করেছে বলে আমরা ধারণা করছি।

নিহতের মেয়ে শিউলি বেগম বলেন, ঘোষবাড়ি এলাকার নুরুল নামে এক মিস্ত্রি আমার বাবার কাছ থেকে টাকা ধার নিয়েছিল। 

টাঙ্গাইল পৌরসভার সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর খালেদা আক্তার বলেন, শামসুলের মাথায় ও মুখে কোপানো হয়েছে।

এ ঘটনায় নিহতের ছোট ভাই অ্যাডভোকেট শামীম আল মামুন বাদী হয়ে দু’জনের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাতনামা ১০ থেকে ১২ জনকে আসামি করে টাঙ্গাইল সদর থানায় মামলা করেছেন। 

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর মোশারফ হোসেন বলেন, ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত খুঁজে বের করার জন্য কাজ করছে পুলিশ।