রাজধানীর ওয়ারীতে মেয়র হানিফ ফ্লাইওভারে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে যাত্রীবাহী একটি বাস সিএনজিচালিত দুইটি অটোরিকশাকে ধাক্কা দেয়। এতে একটি অটোরিকশা ছিটকে গিয়ে একটি অ্যাম্বুলেন্সকে ধাক্কা দেয়। বুধবার বিকেলে এই দুর্ঘটনা ঘটে। এতে অন্তত ৬ জন আহত হয়েছেন। তাদের বিভিন্ন হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, দুর্ঘটনায় অভিযুক্ত ঢাকা-নরসিংদী রুটে চলাচলকারী 'মেঘালয় লাপারী' পরিবহনের বাসটি জব্দ করা হয়েছে। তবে এর চালক ও হেলাপার পালিয়েছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে মেঘালয় লাপারী পরিবহনের বাসটি যাত্রাবাড়ীর থেকে গুলিস্তানের দিকে যাচ্ছিল। সেটি মেয়র হানিফ ফ্লাইওভারের ওয়ারীর হোমিওপ্যাথিক কলেজের কাছে পৌঁছালে পেছন থেকে দুইটি অটোরিকশাকে ধাক্কা দেয়। এর একটি অটোরিকশা সামনে থাকা অ্যাম্বুলেন্সকে ধাক্কা দেয়। এই ঘটনায় কয়েকজন আহত হয়েছেন। 

ওয়ারী থানার উপপরিদর্শক সোহেল রানা জানান, দুর্ঘটনার পর স্থানীয় লোকজন আহতদের উদ্ধার করে আশপাশের হাসপাতালে নেয়। তিনি জানতে পেরেছেন এতে অন্তত ৬ জন আহত হয়েছেন। অ্যাম্বুলেন্সে ধাক্কা লাগলেও ভেতরে থাকা রোগী অক্ষত ছিলেন বলে জানতে পেরেছেন। ওই দুর্ঘটনার পর ফ্লাইওভারে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। দুর্ঘটনাকবলিত তিনটি গাড়ি সরিয়ে নিয়ে যান চলাচল স্বাভাবিক করা হয়।

ওয়ারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কবির হোসেন হাওলাদার জানান, প্রাথমিকভাবে জেনেছেন বাসটি ব্রেক ফেল করে অটোরিকশাকে ধাক্কা দেয়। চালক ও হেলপারকে আটক করা গেলে  বিস্তারিত জানা যাবে। চালকের ড্রাইভিং লাইসেন্স ছিল কি-না বা বাসের ফিটনেস ছিল কি-না তাও তদন্ত করা হবে।