নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী বিএনপি নেতা তৈমূর আলম খন্দকারের পক্ষে নির্বাচনী প্রচারে অংশ নেওয়ার পর গ্রেপ্তার আরও দুই নেতা জামিন পেয়েছেন। বুধবার জেলা আদালত থেকে জামিনে মুক্তি পান বন্দর থানা বিএনপি নেতা কাজল প্রধান ও মহানগর যুবদল নেতা আব্দুর রহমান।

কারামুক্তির পর তৈমূরের পক্ষে তাদের ফুল দিয়ে বরণ করে নেন মহানগর যুবদলের সাবেক সভাপতি ও কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ।

এর আগে সিটি নির্বাচনে তৈমূরের পক্ষে নির্বাচনী প্রচারে অংশ নেওয়া বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের একাধিক নেতা আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে গ্রেপ্তার হন। তাদের আগের বিভিন্ন মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়। তবে তৈমূরের অভিযোগ, তার নির্বাচনী প্রচারকে বাধাগ্রস্ত করতে পরিকল্পিতভাবে তার পক্ষের নেতাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

মুক্তি পাওয়া ওই নেতাদের পরে মোবাইল ফোনে তৈমূর বলেন, আমাদের লড়াইয়ে আপনারা সঙ্গে ছিলেন, গ্রেপ্তার হয়েছেন, নির্যাতিত হয়েছেন। আপনাদের এই ত্যাগ আমি কখনও ভুলে যাব না। আমি আমৃত্যু পাশে থেকে আপনাদের জন্য কাজ করে যাব। আমি আপনাদেরই একজন।

এর আগে গত সোমবার তৈমূর সমর্থক আট নেতা আদালত থেকে জামিন পান।