নাটোরের গুরুদাসপুরে পোস্ট অফিস থেকে ২ লাখ ৫৮ হাজার টাকা চুরির ঘটনা ঘটেছে। বুধবার রাতের কোন এক সময় পৌর সদরের 'হাট গুরুদাসপুর' এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

পোস্ট অফিস সূত্রে জানা যায়,  ব্যাংক এশিয়ার প্রতিনিধি সিএসও কেয়া খাতুন (৩০) পোস্ট অফিসে তার নিজ ড্রয়ারে ২ লাখ ৫৮ হাজার টাকা জমা রাখেন। প্রতিদিনের জমানো টাকা পোস্ট মাস্টারের কাছে জমা দেয়া হলেও বুধবার তিনি জমা দেন নাই। সকালে অফিসে নিজ কক্ষে গিয়ে তিনি দেখেন একটি ড্রয়ার ভাঙ্গা ও সিসি ক্যামেরার হার্ডডিস্ক নেই। পরে কেয়া খাতুন বিষয়টি পোস্ট মাস্টারসহ স্টাফদের জানান।

ব্যাংক এশিয়ার প্রতিনিধি কেয়া খাতুন বলেন, বুধবার অফিসের কাজ শেষে ২ লাখ ৫৮ হাজার টাকা ড্রয়ারে তালাবদ্ধ করে রেখে চলে যান। সকালে এসে দেখেন টাকা নেই।

পোস্ট অফিসের নৈশ প্রহরী জানান, তিনি রাত ২টা পর্যন্ত ডিউটি করেন। পরে তালাবদ্ধ করে অফিসের মধ্যে ঘুমিয়ে পরেন। তার ভাষায়, রাতে সেখানে কোনো লোকজন আসেনি এবং কোন প্রকার ভাঙ্গচুরের শব্দও তিনি শোনেননি।

পোস্ট মাস্টার মিজানুর রহমান বলেন, প্রতিদিন কার্যক্রম শেষে জমানো টাকা গুরুদাসপুর থানায় জমা রাখা হয়। ব্যাংক এশিয়া আমাদের সাথে যৌথভাবে যুক্ত রয়েছে। সেই মোতাবেক বুধবার কেয়াকে টাকার কথা জিজ্ঞেস করলে তিনি জানান তার কাছে জমা করার মতো কোন টাকা নাই। আমাদেরও টাকা ছিল না, তাই থানায় যাওয়া হয়নি। কিন্তু সকালে এসে শুনি ব্যাংক এশিয়ার প্রতিনিধির কক্ষ থেকে টাকা চুরি হয়েছে।

এ বিষয়ে গুরুদাসপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল মতিন বলেন, তদন্ত চলছে। তদন্ত শেষে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।