পূর্ব সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের দুবলার চরের রুপার গাঙ এলাকায় একটি বাঘের মরদেহ পাওয়া গেছে। শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে স্মার্ট দলের সদস্যরা নিয়মিত টহলকালে নদীর চরে বাঘের মরদেহটি পড়ে থাকতে দেখেন। পরে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানান তারা। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত (রাত ৮টা) বাঘের মরদেহটি ঘটনাস্থলে রয়েছে। বন কর্মকর্তারা মরদেহটি উদ্ধারের চেষ্টা করছেন।

সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মুহাম্মদ বেলায়েত হোসেন সমকালকে জানান, স্মার্ট টিমের সদস্যরা দুবলার চরসংলগ্ন রুপার গাঙ এলাকায় একটি বাঘের দেহ পড়ে থাকতে দেখেন। তারা কাছে গিয়ে বাঘটি মৃত বলে নিশ্চিত হন।

প্রত্যক্ষদর্শী বনরক্ষীদের বরাত দিয়ে ডিএফও জানান, পুরুষ বাঘটির বয়স ১৫-১৬ বছর হবে। শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। বার্ধক্যজনিত কারণে দুই-তিন দিন আগে মারা যেতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ডিফেও আরও জানান, শরণখোলা রেঞ্জ কর্মকর্তা (এসিএফ) মো. শামসুল আরেফিনসহ বনরক্ষীরা ঘটনাস্থলে রয়েছেন। মৃত বাঘটি উদ্ধার করে রেঞ্জ অফিসে আনা হবে। শনিবার সকালে রেঞ্জ অফিস চত্বরে ময়নাতদন্ত শেষে বাঘের বিভিন্ন নমুনা ফরেনসিক ল্যাবে পাঠানো হবে। এরপর জানা সম্ভব হবে কী কারণে মারা গেছে বাঘটি।