ফরিদপুরের ভাঙ্গায় দাঁড়িয়ে থাকা একটি ট্রাকের সঙ্গে মোটরসাইকেলের ধাক্কা লেগে দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন।  শুক্রবার রাত ৮টার দিকে উপজেলার হামিরদী বাসস্ট্যান্ডে ফরিদপুর-ভাঙ্গা-বরিশাল মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- ফরিদপুরের পশ্চিম খাবাসপুরের প্রয়াত ইউনূস মিয়ার ছেলে আনোয়ার হোসেন (৪২) এবং ভাঙ্গার নওয়াপাড়ার মির্জা আব্দুর রশিদের ছেলে ওয়াহিদুজ্জামান বাবু। তাদের মধ্যে আনোয়ার হোসেন ভাঙ্গা উপজেলা ইউনিয়নে সমাজকর্মী হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

ঘটনায় সত্যতা নিশ্চিত করে ভাঙ্গা হাইওয়ে থানার উপ-পরিদর্শক মো. শাহালম জানান, শুক্রবার রাতে আনোয়ার হোসেন ও তার বন্ধু  ওয়াহিদুজ্জামান বাবু মোটরসাইকেলে ভাঙ্গা থেকে ফরিদপুরের উদ্দেশ্যে রওনা হন। তাদের মোটরসাইকেলটি হামিরদী বাসস্ট্যান্ডে পৌঁছলে চালক নিয়ন্ত্রণ হারান এবং মোটরসাইকেলটি মহাসড়কে দাঁড়িয়ে থাকা ফরিদপুরগামী একটি পাট বোঝাই ট্রাকের পেছনে গিয়ে ধাক্কা দেয়। এ সময় চলন্ত মোটরসাইকেলটি ট্রাকের নিচে ঢুকে যায়। এতে ঘটনাস্থলে মোটরসাইকেল চালক আনোয়ার নিহত হন ও বাবু গুরুতর আহত হন।

পুলিশের এই কর্মকর্তা আরও জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহটি উদ্ধার করে। গুরুতর আহত ব্যক্তিকে প্রথমে ভাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ৯টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

উপ-পরিদর্শক মো. শাহালম জানান, শনিবার সকালে মরদেহ দুটি তাদের স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় ট্রাকটি জব্দ করা হয়েছে। ট্রাকের চালক ও হেলপার পলাতক রয়েছে।