সম্প্রতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সাফারি পার্কে জেব্রা, বাঘ ও সিংহের মৃত্যুর পেছনে সংশ্লিষ্টদের অবহেলার অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম। তিনি বলেছেন, অবহেলা নয়, গাজীপুরের শ্রীপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কে জীবাণু সংক্রমণে জেব্রা, বাঘ ও সিংহের মৃত্যু হয়েছে। যেসব বিদেশি প্রাণী আনা হয়, সে দেশের জলবায়ু কিংবা থাকার জায়গা আমাদের দেশের মতো না। এছাড়া বিভিন্ন ধরনের রোগ ও জীবাণু সংক্রমণও হয়।

শনিবার বেলা সাড়ে ১১টায় সিলেটে প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের বিভিন্ন প্রকল্প পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, একাধিক ল্যাবরেটরিতে পরীক্ষা করে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, সংক্রমণে এসব প্রাণী মারা গেছে। জেব্রার মৃত্যু জীবাণু সংক্রমণে হয়েছে। এছাড়া বিড়াল প্রজাতির প্রাণীও বিভিন্নভাবে সংক্রমিত হচ্ছে। তিনি বলেন, সকল প্রাণীর নিরাপত্তা নিশ্চিতে কাজ করছে সরকার।

বৃহস্পতিবার পর্যন্ত সাফারি পার্কে ১১টি জেব্রা, একটি বাঘ ও একটি সিংহী মারা যায়। এসব প্রাণীর মৃত্যু নিয়ে তদন্ত কমিটি গঠনের পাশাপাশি সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে তিনজন কর্মকর্তাকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। এ প্রসঙ্গে মন্ত্রী রেজাউল করিম বলেন, সাফারি পার্কে জেব্রা, বাঘ ও সিংহীর মৃত্যু কারও ত্রুটির কারণে হয়েছে কিনা, তা খতিয়ে দেখছে মন্ত্রণালয়। এখন পর্যন্ত যে প্রতিবেদন পাওয়া গেছে, তাতে প্রাণীগুলোর মৃত্যু বিভিন্ন রোগে হয়েছে বলে মনে হয়।

এর আগে বিমানযোগে ঢাকা থেকে সিলেটে ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান মন্ত্রী রেজাউল করিম। এ সময় সিলেটের জেলা প্রশাসক মো. মজিবুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শফিকুর রহমান চৌধুরী তাকে স্বাগত জানান। সিলেট সার্কিট হাউসে কিছুক্ষণ বিশ্রামের পর সকাল সাড়ে ১০টায় তিনি নগরীর টিলাগড়ে ইনস্টিটিটিউট অব লাইভস্টক সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি (আইএলএসটি), সিলেটের ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন ও প্রকল্প এলাকা পরিদর্শন করেন।

এছাড়া প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের আওতায় নির্মাণাধীন বুল স্টেশন স্থাপন, সরকারি ছাগল উন্নয়ন খামার, জেলা দুগ্ধ খামার পরিদর্শন করেন। প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডা. মনজুর মোহাম্মদ শাহজাদা, মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এমএম ফেরদৌস আলম, প্রাণিসম্পদ দপ্তরের বিভাগীয় পরিচালক ড. অমলেন্দু ঘোষ, সিলেট আইএলএসটি স্থাপন প্রকল্পের পরিচালক ডা. মো. জাহাঙ্গীর আলম, জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. রুস্তুম আলী উপস্থিত ছিলেন। দুপুরে সিলেট সার্কিট হাউসে প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন তিনি।