নারায়ণগঞ্জের চাঞ্চল‌্যকর সাত খুন মামলার ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি নূর হোসেন ও তার ১০ সহযোগীর বিরুদ্ধে একটি মাদক মামলায় আদালতে তিন পুলিশ কর্মকর্তা সাক্ষ্য দিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ সাবিনা ইয়াসমিনের আদালতে তারা সাক্ষী দেন।

সাক্ষীরা হলেন-বর্তমানে সিলেট রেঞ্জে কর্মরত পুলিশ সুপার এসকে আলাউদ্দিন, এসআই কাজী শাওন ও এএসআই সেলিম।

আসামি পক্ষে আইনজীবী ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খোকন সাহা। তাকে সহযোগিতায় ছিলেন একাধিক আইনজীবী।

আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর জাসমীন আহমেদ জানান, ২০১৪ সালের ২৯ মে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ শিমরাইল টেকপাড়া ট্রাক মালিক সমিতি কার্যাল‌য়ের পেছনে অভিযান চালিয়ে একটি টংঘর থেকে ২ হাজার ৮২৪ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় সিদ্ধিরগঞ্জ থানার এসআই শওকত হোসেন বাদী হয়ে নূর হোসেনসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় দুই জনকে চার্জশিট থেকে বাদ দেয়া হয়েছে। এখন ১১ জনের বিরুদ্ধে বিচার চলছে।

তিনি আর জানান, আগামী ১২ মে এ মামলার পরবর্তী সাক্ষ‌্য গ্রহ‌ণের দিন ধার্য করেছেন আদালত। সাক্ষ‌্য গ্রহণ শেষে নুর হোসেনকে পর্যাপ্ত নিরাপত্তায় কাশিমপুর কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের ২৭ এপ্রিল ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংকরোড থেকে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের তৎকালীন প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলামসহ সাতজন অপহৃত হন। ৩০ ও ৩১ এপ্রিল শীতলক্ষ্যা নদী থেকে তাঁদের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় দায়ের করা মামলায় জেলা ও দায়রা জজ আদালত নূর হোসেন, র‌্যাবের সাবেক তিন কর্মকর্তাসহ ২৬ জনকে ফাঁ‌সিসহ বি‌ভিন্ন দন্ড দেন।