ঢাকার আশুলিয়ায় সেই জুতা তৈরির কারখানার কোনো অনুমোদন ছিল না; যেখানে আগুনে ৩ শ্রমিক প্রাণ হারিয়েছেন। বুধবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) রাতে কারখানাটি পরিদর্শনে এসে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন সাভার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মাজহারুল ইসলাম।

ইউএনও মাজহারুল ইসলাম বলেন, অগ্নিকাণ্ডে তিন শ্রমিকের মৃত্যুর ঘটনাটি খুবই দুঃখজনক। কারখানাটির কোনো ধরনের অনুমোদন ছিল না।

এর আগে সাভারের আশুলিয়ায় জুতা তৈরির কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধ হয়ে তিন শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত আরও ২০ জন শ্রমিক। তাদেরকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বুধবার (২২ ফেব্রুয়ারি) বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে আশুলিয়ার বঙ্গবন্ধু সড়কের বেপারী মার্কেট এলাকায় অবস্থিত ইউনি ওয়ার্ল্ড ফুটওয়্যার লিমিটেড-২ কারখানায় এ ঘটনা ঘটে। 

খবর পেয়ে সাভার ও ডিইপিজেড ফায়ার সার্ভিসসহ মোট সাতটি ইউনিট দুই ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে রাত সাড়ে ৭টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। টিনশেড এ কারখানাটিতে কীভাবে আগুনের সূত্রপাত ঘটেছে, তা এখনও জানা যায়নি। তবে ধারণা করা হচ্ছে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকেই আগুনের সূত্রপাত ঘটতে পারে।

এছাড়া অগ্নিকাণ্ডে নিহত শ্রমিক ও দগ্ধদের নাম-পরিচয় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত পাওয়া যায়নি। অগ্নিদগ্ধে আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া নিহতদের মধ্যে দুইজন নারী ও একজন পুরুষ রয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

ফায়ার সার্ভিস জানায়, প্রথমে খবর পেয়ে ডিইপিজেড ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণের কাজ শুরু করে। তবে আগুনের তীব্রতা বৃদ্ধি পাওয়ায় সাভার ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ও জোন কমান্ডারের একটি ইউনিটসহ মোট সাতটি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজে যোগ দেয়। এ সময় প্রায় দুই ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে রাত সাড়ে ৭টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে ফায়ার সার্ভিস। তবে ততক্ষণে দগ্ধ হয়ে তিন শ্রমিকের মৃত্যু হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বিকেল পাঁচটার দিকে হঠাৎ করে ওই জুতা তৈরির কারখানায় বিদ্যুতের শর্টসার্কিট থেকে আগুন লাগে। এ সময় আগুনের লেলিহান শিখা মুহূর্তের মধ্যে পুরো কারখানায় ছড়িয়ে পড়ে। আগুনের তীব্রতা বেশি হওয়ায় স্থানীয় লোকজন কারখানার কাছে যেতে পারেনি। পরে ফায়ার সার্ভিসে খবর দেওয়া হয়। আগুন লাগার কারণে কারখানাটির দেয়াল ভেঙে পড়েছে।

এদিকে আগুনের খবর পেয়ে সাভার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মাজহারুল ইসলাম, আশুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহাব উদ্দিন মাদবরসহ আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

ডিইপিজেড ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার জহিরুল ইসলাম বলেন, বঙ্গবন্ধু রোড এলাকার একটি জুতা তৈরির কারখানায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। খবর পেয়ে সাভার, আশুলিয়া ও ঢাকাসহ আমাদের ৭টি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নির্বাপণের কাজ শুরু করি। তবে আগুন লাগার সঠিক কারণ এবং ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ সম্পর্কে জানাতে পারেননি তিনি।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান জানান, মরদেহগুলো উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। তাদের নাম-পরিচয় শনাক্তের চেষ্টা চলছে।