কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় গোষ্ঠীগত দ্বন্দ্বে আওয়ামীলীগ নেতা সিদ্দিকুর রহমান মন্ডল হত্যা মামলার পলাতক ৫ আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-১২)। এসময় হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত দুটি দেশীয় ওয়ান শুটার গান ও ৪ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।

বুধবার রাতে কুষ্টিয়ার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করে র‌্যাব-১২র সদস্যরা।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন; কুষ্টিয়ার ভেড়ামারার চাঁদপুর গ্রামের নজরুল মালিথার ছেলে মন্টু মালিথা ও রনি মালিথা, আব্দুল হামিদ কটার ছেলে জনি ও ড্যানি এবং একই গ্রামের মৃত জফো প্রামানিকের ছেলে জারমান প্রামানিক।

বৃহস্পতিবার সকালে সিরাজগঞ্জের সলঙ্গায় র‌্যাব-১২ সদর দপ্তরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়।

এদিকে র‌্যাবের মিডিয়া সেলের অফিসার সহকারী পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গ্রেপ্তারকৃত আসামিরা হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে সরাসরি জড়িত ছিলেন।

গত ১৮ ফেব্রুয়ারি ভেড়ামারার চাঁদগ্রাম চরে দুর্বৃত্তদের গুলিতে প্রাণ হারান ৩ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সিদ্দিকুর রহমান মন্ডল। এ ঘটনায় পরদিন ভেড়ামারা থানায় নিহতের ভাই এনামুল হক বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলায় কেন্দ্রীয় জাসদের সাংগঠনিক সম্পাদক ও কুষ্টিয়া জেলা জাসদের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আলিম স্বপন এবং তার ভাই চাঁদগ্রাম ইউনিয়ন জাসদের সভাপতি ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হাফিজ তপন ও তাদের অনুসারী রনিসহ ২০ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে।