লক্ষ্মীপুরে যৌতুকের দাবিতে গৃহবধূ আরজু বেগমকে হত্যার দায়ে তার স্বামী কামাল উদ্দিনকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত। একই সঙ্গে তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

বুধবার বেলা ১১টার দিকে লক্ষ্মীপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ সিরাজুদ্দৌলাহ কুতুবী এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত কামাল সদর উপজেলার হাজিরপাড়া ইউনিয়নের বড় বলতভপুর গ্রামের বাসিন্দা। মামলার বাদী জগলুর রহমান দিঘলী ইউনিয়নের রাজাপুর গ্রামের বাসিন্দা।

আদালত সূত্রে জানা যায়, কামাল উদ্দিন যৌতুকের দাবিতে আরজু বেগমকে বিভিন্ন সময় নির্যাতন করতো। সর্বশেষ ২০০৯ সালের ২ জানুয়ারি হুমকি ও রাত ৯ টা থেকে পরদিন সকাল ৭ টা পর্যন্ত যেকোন সময়ে আরজু বেগমকে নির্যাতন (মারধর) করে হত্যা করে।

এ ঘটনায় ৪ জানুয়ারি নিহতের বড় ভাই জগলুর রহমান বাদী হয়ে কামালের বিরুদ্ধে সদর মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় পুলিশ আদালতে কামালের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। আদালত ১৫ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ ও দীর্ঘ শুনানি শেষে এ রায় দেন।

নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের সরকারি কৌশলী অ্যাডভোকেট আবুল বাশার রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, স্ত্রী হত্যায় আদালতে কামাল দোষী প্রমাণিত হয়েছে। এতে আদালত তার মৃত্যুদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানার আদেশ দেন। রায় ঘোষণার সময় আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন।