নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার বসুরহাট সরকারি কলেজের ছাত্রী ও কোম্পানীগঞ্জ মর্ডান হাসপাতালের শিক্ষানবিশ সেবিকা শাহনাজ পারভীন প্রিয়তা হত্যায় জড়িত থাকার অভিযোগে মমিনুল হক ওরফে ফারুক (৩২) নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার গভীর রাতে উপজেলার চরফকিরা ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডে বিশেষ অভিযান চলিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার ফারুক চরফকিরা ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের মজিবুল হকের ছেলে।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাজ্জাদ রোমন বলেন, ফারুক প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে প্রিয়তা হত্যায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছেন। তাকে আরও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাতদিনের রিমান্ড চাওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ২৮ ফেব্রুয়ারি দুপুরে উপজেলার বসুরহাট পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের ইয়াছিন মোল্লার বাড়ির পেছনের ধানক্ষেত থেকে শাহনাজ পারভীন প্রিয়তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ওইদিনই প্রিয়তার বাবা অজ্ঞাত ব্যক্তিদের আসামি করে একটি হত্যা মামলা করেন।