নড়াইলের লোহাগড়ায় ছাগল চুরির অভিযোগে দুই শিশুকে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতনের ঘটনায় তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা হলেন-এড়েন্দা গ্রামের অশোক কুমার হোড় (৩০), আলিফ মোল্লা (১৩) ও সারুলিয়া গ্রামের রিয়াদ (১১)।

গ্রেপ্তার অশোক কুমার হোড়কে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। আলিফ মোল্লা ও রিয়াদ শিশু হওয়ায় তাদের যথাসময়ে আদালতে হাজির করা হবে মর্মে পরিবারের জিম্মায় দেওয়া হয়েছে।

বুধবার দুপুরে উপজেলার এড়েন্দা গ্রামে নির্যাতনের ওই ঘটনা ঘটে। ভুক্তভোগী শিশুরা হলো উপজেলার পদ্মবিলা গ্রামের মো. আসাদুজ্জামানের ছেলে আজিজুর রহমান (১৩) ও সারুলিয়া গ্রামের বিল্লাল হোসেনের ছেলে জয় (১৩)।

নির্যাতনের শিকার শিশু আজিজের বাবা মো. আসাদুজ্জামান আজ বাদী হয়ে ছয়জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাতনামা আরও ৭-৮ জনকে আসামি করে লোহাগড়া থানায় মামলা করেন।

স্থানীয় লোকজন ও পুলিশ সূত্র জানায়, গত বুধবার দুপুরে এড়েন্দা গ্রামের জহুর শেখের একটি ছাগল আজিজুর ও জয় চুরি করে পালানোর চেষ্টা করে, এমন অভিযোগের ভিত্তিতে ওই দুই শিশুকে জহুর শেখের বাড়িতে একসঙ্গে গাছের সঙ্গে দড়ি দিয়ে বেঁধে স্থানীয় কয়েকজন পেটান। পরে তাদের লোহাগড়া থানা-পুলিশে দেওয়া হয়। ওই দুই শিশুর বিরুদ্ধে কোনো লিখিত অভিযোগ না থাকায় পুলিশ তাদের ছেড়ে দেয়।

লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ আবু হেনা বলেন, এ ঘটনায় নির্যাতনের শিকার শিশু আজিজের বাবা মো. আসাদুজ্জামান আজ বাদী হয়ে ছয়জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাতনামা আরও ৭-৮ জনকে আসামি করে লোহাগড়া থানায় মামলা করেন। পুলিশ মামলার তিন আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে। অন্যদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।