চট্টগ্রাম বিশ্বিবদ্যালয়ের (চবি) তৃতীয় বর্ষের এক ছাত্রীকে শাটল ট্রেনে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে অজ্ঞাত পরিচয়ের এক যুবকের বিরুদ্ধে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে এই ঘটনা ঘটে। 

ঘটনার বর্ণনা দিয়ে ভুক্তভোগী ছাত্রী বলেন, তিনি বিকেল সাড়ে পাঁচটার ট্রেনে ক্যাম্পাস থেকে নগরের বটতলী গামী ট্রেনে যাওয়ার জন্য ওঠেন। গতকাল ছাত্রলীগের বিক্ষোভের কারণে এই ট্রেন সাতটার দিকে ক্যাম্পাস থেকে ছেড়ে যায়। দেরি হওয়ার কারণে ট্রেনে তেমন কোনো মানুষ ছিল না। তিনি যে বগিতে ওঠেন সেখানে আরও দু'জন ২০ থেকে ২২ বছর বয়সের ছেলে ছিলেন।

ওই ছাত্রী জানান, ট্রেনে বাতি ছিল না। অন্ধকারের কারণে তাদের চেহারা ঠিকমতো দেখতে পাননি। ট্রেনটি ফতেহাবাদ পার হলে এক পর্যায়ে ওই দুই ছেলের একজন এসে তার মুখ চেপে ধরেন। ধর্ষণের চেষ্টা করতে থাকেন। ভুক্তভোগী ছাত্রী নিজেকে ছাড়িয়ে নিতে চাইলে দু'জনের মধ্যে ধস্তাধস্তি হয়। ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে ছেলেটির হাত তার মুখ থেকে সরে যায়, এরপর ভুক্তভোগী ছাত্রী সজোরে চিৎকার দেন। আর এতেই ভয় পেয়ে ছেলেটি তাকে ছেড়ে দেন। পরে দ্রুত ট্রেনের ছাদে উঠে অন্য বগিতে চলে যান।

ভুক্তভোগী ছাত্রী আরও জানান, তিনি এই ঘটনার পর অনেক ভয় পান। তার ঠোঁট এবং মুখের বেশ কয়েক জায়গায় নখের আঁচড়ে কেটে যায়। এখন শ্বাস নিতে সমস্যা হচ্ছে তার।

কাউকে অভিযোগ করেছেন কি-না জানতে চাইলে তিনি বলেন, ভীত থাকার কারণে ওইদিন তাৎক্ষণিক কাউকে তিনি অভিযোগ দেননি। এছাড়া নাম প্রকাশের ভয়ও রয়েছে। তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর মুঠোফোনে তার থেকে বিষয়টি জেনেছেন।

এই বিষয়ে জানতে চাইলে ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর শহিদুল ইসলাম বলেন, ‘ভুক্তভোগী ছাত্রীর সঙ্গে কথা বলেছি। তাকে লিখিত অভিযোগ দিতে বলেছি। আমরা নিরাপত্তা ব্যবস্থা আরও জোরদার করার চেষ্টা করছি।’