কুমিল্লায় অপহরণের দুদিন পর মো. বাপ্পি নামে ৭ বছর বয়সী এক শিশুর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। রোববার রাত ৯টার দিকে জেলার সদর দক্ষিণ উপজেলার সুয়াগাজী এলাকার একটি জমি থেকে ওই শিশুর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত শিশু মো. বাপ্পি উপজেলার জোড়কানন ইউনিয়ের তারাপুর গ্রামের দিনমজুর রাসেল মিয়ার ছেলে।

কুমিল্লার সদর দক্ষিণ মডেল থানার ওসি দেবাশীষ চৌধুরী বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, রুমা আক্তারের দ্বিতীয় স্বামী রুবেল হোসেন ওরফে সেলিম সুয়াগাজী এলাকার একটি ফসলি জমিতে বাপ্পির মরদেহ তার শ্বশুর জালাল মিয়াকে দেখিয়ে দিয়ে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে বাপ্পির মরদেহ দেখে জালাল মিয়া (বাপ্পির নানা) পুলিশে খবর দেন। পুলিশ এসে ওই শিশুর মরদেহ উদ্ধার করে।

ওই শিশুর প্রতিবেশী আনিছুল হক জানান, গত শুক্রবার বাপ্পি বাসা থেকে নিখোঁজ হয়। এরপর এলাকায় খোঁজাখুজি করেন না পেয়ে শনিবার কুমিল্লা সদর দক্ষিণ থানা একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়।

ওসি আরও বলেন, এ হত্যাকাণ্ডে শিশু বাপ্পির সৎ বাবা রুবেল হোসেন জড়িত রয়েছে বলে অভিযোগ করেছে তার পরিবার। এছাড়া রুবেলই বাপ্পির মরদেহ দেখিয়ে দিয়ে পালিয়ে গিয়েছিল। তাকে আটক করতে পুলিশের দুটি টিম অভিযান শুরু করেছে।