সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলায় ছেলেকে না পেয়ে মা কবিতা মণ্ডলকে (৬০) পিটিয়ে জখম করার অভিযোগ উঠেছে। রোববার সন্ধ্যায় উপজেলার মুন্সিগঞ্জ পুর্বধানখালী গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

সোমবার ওই নারীর ছেলে বিশ্বজিৎ মণ্ডল বাদী হয়ে জড়িতদের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। আহত ওই নারীকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

বিশ্বজিত মণ্ডল জানান, পাঁচ শতক জমি দখলে নিতে প্রতিবেশী শিশু মণ্ডল দীর্ঘদিন ধরে চেষ্টা করছেন। বিভিন্ন সময় নানা ধরনের হয়রানি করছেন তিনি। সম্প্রতি তারা ইউনিয়ন পরিষদে তার বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ জানান।

তিনি আরও অভিযোগ করেন, রোববার রাতে শিশু মণ্ডল ১০/১২ জন বহিরাগত নিয়ে তাদের বাড়িতে হামলা চালান। এ সময় বাড়িতে তাকে না পেয়ে বসতঘর ভাঙচুরের চেষ্টা করেন। তার মা কবিতা মণ্ডল বাঁধা দিলে তাকে মারধর করা হয়।

এ ঘটনায় সোমবার শিশু মণ্ডল, মিলন, দিলীপ, নিশিকান্ত, শিমুল ও পলাশসহ ৮ জনের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাত আরও ৪ জনকে আসামি করে শ্যামনগর থানায় লিখিত অভিযোগ করেন বিশ্বজিত মণ্ডল।

কবিতা মণ্ডলকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ অস্বীকার করে শিশু মণ্ডল জানান, সামান্য ঘটনাকে বড় করা হয়েছে।

শ্যামনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী ওয়াহিদ মর্শেদ জানান, লিখিত অভিযোগ পাওয়ার পর পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।