ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে মায়ের সঙ্গে অভিমান করে ইঁদুরের বিষ খেয়ে ইন্দ্রজিৎ সরকার (২২) নামে এক যুবক আত্মহত্যা করেছেন। এ ঘটনায় চাতলপাড় পুলিশ ফাঁড়িতে একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন চাতলপাড় পুলিশ ফাঁড়ির তদন্ত কর্মকর্তা কাঞ্চন কুমার সিংহ। 

আজ সোমবার নাসিরনগর উপজেলার চাতলপাড় ইউনিয়নের ধানতলিয়া গ্রামের হাশিমপুর পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। ইন্দ্রজিৎ চাতলপাড় ইউনিয়নের ধানতলিয়া গ্রামের হাশিমপুর পাড়ার শ্রীনিবাস সরকারের ছেলে।

স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, দুই মাস আগে ইন্দ্রজিৎ নিজে পছন্দ করে বিয়ে করেন। বিয়ের পর থেকেই তাদের পরিবারে কলহ লেগে থাকত। নিজের পছন্দে বিয়ে করায় ছেলের বউকে মেনে নিতে পারছিলেন না নিহতের মা। প্রতিনিয়ত পুত্রবধূর সঙ্গে ঝগড়া হতো। তাই মানসিক কষ্ট সইতে না পেরে সোমবার সকালে  ইঁদুরের বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন ইন্দ্রজিৎ। পরে স্থানীয়রা ইন্দ্রজিৎকে উদ্ধার করে নাসিরনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তার পাকস্থলী থেকে বিষ বের করেন। এরপর ঢাকা প্রেরণ করেন। ঢাকা যাওয়ার পথে সন্ধ্যায় তিনি মারা যান।

কাঞ্চন কুমার সিংহ জানান, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।