গত একদিনে ২ হাজার ২১২ জনের নমুনা পরীক্ষায় দেশে মাত্র ২টি জেলায় নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে। এসময়ের মধ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়ে কেউ মারা যাননি।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় যে চারজন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে তাদের মধ্যে তিনজন ঢাকার এবং একজন কক্সবাজার জেলার বাসিন্দা।

বাংলাদেশে এরচেয়ে কম রোগী শনাক্ত হয়েছিল সেই মহামারীর শুরুর দিকে, ২০২০ সালের ২ এপ্রিল, সেদিন দুজন রোগী শনাক্তের কথা জানিয়েছিল স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

ঈদের ছুটির মধ্যে শনাক্তের হারও নেমে এসেছে শূন্য দশমিক ২০ শতাংশের নিচে। 

নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে দৈনিক শনাক্তের হার দাঁড়িয়েছে শূন্য দশমিক ১৮ শতাংশে। আগের দিন এই হার শূন্য দশমিক ৬০ শতাংশ ছিল।

দৈনিক শনাক্তের এই হার ২০২০ সালের ২৯ মার্চের পর সর্বনিম্ন। সেদিন ১০৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করে কারও করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়নি।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, নতুন রোগীদের নিয়ে দেশে শনাক্ত রোগীর মোট সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৯ লাখ ৫২ হাজার ৭৪৭ জন।

এ নিয়ে টানা পঞ্চদশ দিন কোভিডে মৃত্যুহীন দিন পার করেছে বাংলাদেশ। তাতে মৃত্যুর মোট সংখ্যা আগের মতই ২৯ হাজার ১২৭ জনে রয়েছে।

করোনাভাইরাস মহামারীর শুরুর দিকে ২০২০ সালের ১৮ মার্চ প্রথম মৃত্যুর কথা জানায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। এরপর থেকে একটানা ১৫দিন কখনোই মৃত্যুহীন ছিল না।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাস থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছে ২৫৭ জন। তাদের নিয়ে ১৮ লাখ ৯৬ হাজার ৭৮৮ সুস্থ হয়ে উঠলেন।