কিশোরগঞ্জের ভৈরবে সোনিয়া বেগম (১৮) নামের এক গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার সকালে উপজেলার শ্রীনগর ইউনিয়নের ভবানীপুর গ্রাম থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় সোনিয়ার স্বামী ও শ্বশুর আবুবক্করকে আটক করেছে পুলিশ।

মারা যাওয়া সোনিয়া বেগম একই এলাকার মো. শাহিন মিয়ার স্ত্রী।

পুলিশ ও সোনিয়ার পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে,পাঁচ মাস আগে শাহিনের সঙ্গে সোনিয়ার বিয়ে হয়। শনিবার ভোরে সোনিয়ার বাবার বাড়ির লোকজন খবর পান তিনি বাথরুমে পড়ে মারা গেছেন।

সোনিয়ার বাবা ফারুক আহমেদ অভিযোগ করে বলেন, সকালে খবর পেয়ে শাহিনের বাড়িতে গিয়ে দেখি মেয়ের লাশ ঘরের খাটে পড়ে আছে। আমার মেয়ের গলায় ক্ষতের চিহ্ন আছে। তার দাবি, সোনিয়ার স্বামী শাহিন ও তার লোকজন তার মেয়েকে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করেছে।

ভৈরব থানার ওসি  মো. গোলাম মোস্তফা জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই গৃহবধূর স্বামী ও শ্বশুরকে আটক করেছে এবং লাশটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। লাশের ময়না তদন্ত করতে কিশোরগঞ্জ পাঠানো হয়েছে। গৃহবধূর পরিবার এ বিষয়ে অভিযোগ দিলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান তিনি।