শিক্ষার্থীদের প্রযুক্তিবান্ধব দক্ষ মানুষ হতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে যত বিভাগ ও যত বিষয়ই থাকুক না কেন সাহিত্য, ইতিহাস ও দর্শনও পড়তে হবে।

বুধবার দুপুরে ময়মনসিংহের ত্রিশালে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাককানইবি) ১৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী এবং বিভিন্ন উন্নয়ন কার্যক্রম উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ তিনি মন্তব্য করেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. সৌমিত্র শেখরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য এ এস এম মাকসুদ কামাল, স্থানীয় সংসদ সদস্য হাফেজ রুহুল আমিন মাদানী।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, যদি কোনো শিক্ষার্থী ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ছাত্র হন, কিংবা চিকিৎসাবিজ্ঞান তার জন্যও সাহিত্য, ইতিহাস, দর্শন পড়া অত্যাবশ্যক। এই বিষয়গুলো ছাত্রদের মনোজগত প্রসারিত করবে, চিন্তার গভীরতা বাড়াবে। এছাড়া তো বিশ্ববিদ্যালয় হয় না।

তিনি আরও বলেন, ‘ইতিহাস পড়াতে হবে, সেই ইতিহাস শুধু রাজ-রাজাদের ইতিহাস নয়, স্বাধীন বাংলাদেশ অভ্যূদয়ের ইতিহাস পড়তে হবে। এ বিষয়টির জন্য আমি উপাচার্যকে অনুরোধ করবো।’

শিক্ষিত বেকার তৈরি করতে চাই না উল্লেখ করে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, কর্মজগতের চাহিদা বিবেচনা করে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে অ্যাকাডেমিক মাস্টারপ্ল্যান তৈরি করতে হবে। একশ' বছর আগে যে বিষয়গুলো বিশ্ববিদ্যালয় পড়ানো হতো তার সবগুলো হয়ত এখন সব বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ানোর জন্য প্রসঙ্গিক নয়। কোথাও বন্ধ করতে হবে, আবার কোথাও নতুন বিষয় খুলতে হবে। সেজন্য মাস্টারপ্ল্যান করা এবং সময় সময় তা আপডেট করার প্রয়োজন হবে।

দীপু মনি বলেন, ‘চতুর্থ শিল্প বিপ্লব দরজায় কড়া নাড়ছে। তার জন্য তৈরি হতে হবে। আমরা যেসব শিক্ষার্থীদের গ্র্যাজুয়েট করছি তাদের জব রেডি হিসেবে তৈরি করছি কি-না তা আমাদের দেখতে হবে। যাদের ডিগ্রি দিলাম তারা যদি চাকরি না পায়, উদ্যোক্তা হতে না পারে, তাহলে তার সনদের কোনো দাম থাকবে না। আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে অনেক উন্নতমানের শিক্ষা দেওয়ার সুযোগ রয়েছে। আমাদের অসাধারণ শিক্ষক রয়েছেন, গবেষণাও রয়েছে। একটু গুছিয়ে কাজগুলো করতে হবে, পরিকল্পনা করতে হবে।’

কর্মজগতের ভালো ধারণা নিয়েই পাস করতে হবে উল্লেখ করে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘আমরা বারবার অ্যাকাডেমিয়া লিংকেজের কথা বলছি। যারা গ্র্যাজুয়েট হচ্ছে তারা যা পড়ছে তার সঙ্গে যদি কর্মজগতের চাহিদার যোগসূত্র না থাকে তাহলে জব রেডি হবে না।’