কক্সবাজারে টেকনাফে আলোচিত শিশু অলী উল্লাহ আলো হত্যার মামলায় ৬ জনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। বুধবার বিকেলে কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ ইসমাইল এই রায় ঘোষণা করেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন, নওগাঁ জেলার মহাদেব পুর উপজেলার খোদ্দ নারায়নপুর গ্রামের আফতাব আলী প্রকাশ আতাব আলীর ছেলে সুমন মিয়া (পলাতক), ঠাকুয়ারগাঁও জেলার নিশ্চিন্তপুর গ্রামের মৃত শামছুল হকের ছেলে ইয়াছিন প্রকাশ রায়হান (হাজতে), কুমিল্লা জেলার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার শ্রীপুর গ্রামের আসলাম মিয়ার ছেলে মো: ইয়াকুব (হাজতে), কক্সবাজার জেলার টেকনাফ উপজেলার গোদারবিল গ্রামের আলী হোসেনের ছেলে মো: ইছহাক প্রকাশ কালু (হাজতে), একই উপজেলার মহেশখালীয়া গ্রামের মৃত নবী হোসেনের ছেলে নজরুল ইসলাম (পলাতক), মিয়ানমারের আকিয়াব জেলার মংডু উপজেলার ধুনচিপাড়া গ্রামের মৃত আবদুর রহিমের ছেলে সৈয়দুল আমিন প্রকাশ লম্বাইয়া (পলাতক)। 

মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্ত‌দের হাইকোর্ট বিভাগের অনুমোদন সাপেক্ষে মৃত্যু না হওয়া পর্যন্ত ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার আদেশ দেন আদালত।

এই মামলায় কক্সবাজার জেলার টেকনাফ উপজেলার সাবরাং গ্রামের মৃত মৌলভী আবদুল জলিলের ছেলে মুহিব উল্লাহ ও টেকনাফ পৌরসভার লেঙ্গুরবিল গ্রামের জাফর আহমদের ছেলে দিদার মিয়াকে এই মামলা থেকে খালাস দেয়া হয়েছে। 

কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট ফরিদুল আলম জানান, গত ২০১১ সালের ৭ সেপ্টেম্বর কক্সবাজার জেলা বিএনপির অর্থ সম্পাদক ও টেকনাফ উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মো. আবদুল্লাহর ছেলে অলী উল্লাহ আলোকে হত্যা করে ভাড়াটিয়া খুনিরা। 

ঘটনার ১১ বছর পর বুধবার এই হত্যা মামলার রায় ঘোষণা করেন আদালত।