গোপালগ‌ঞ্জের কা‌শিয়ানীর মিল্টন বাজার এলাকায় বাস ও প্রাই‌ভেটকা‌রের সংঘর্ষে আটজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় অন্তত ২৫ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে দুজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে। বাকিরা প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে হাসপাতাল ছেড়েছেন।

কাশিয়ানির থানার ডিউটি অফিসার সৈয়দ জাকির হোসেন বলেন, শনিবার সকাল ১১ টার দিকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের কাশিয়ানী উপজেলার মিল্টন বাজার (দক্ষিণ ফুকরা) এলাকায় এ মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘনাটি ঘটে।

নিহতরা হলেন- গোপালগঞ্জ শহরের উদয়ন রোর্ডের বাসিন্দা সাবেক কাউন্সিলর প্রফুল্ল কুমার সাহার ছেলে বারডেম হাসপাতালের চিকিৎসক বাসুদেব সাহা (৫৪), তার স্ত্রী শিবানী রানী সাহা (৪৬), ছেলে আহসানউল্লাহ বিশ্ববিদ্যালয়ের ত্রিপলী বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী স্বপ্নীল সাহা, প্রাইভেটকার চালক ঢাকার আদাবর থানার দোয়ারী এলাকার আব্দুর রশিদ মিয়ার ছেলে মো. আজিজ মিয়া (৩৫), কাশিয়ানী উপজেলার ফুকরা গ্রামের ফিরোজ মোল্লা (৫০) ও তার স্ত্রী রুমা বেগম (৪০), অনিক মিয়া (২৮) ও তার স্ত্রী জেসমিন আক্তার (২৭)।

ঘটনাস্থল থেকে কাশিয়ানি থানার এসআই সিরাজুল ইসলাম সমকালকে জানান, শনিবার বেলা ১১টায় ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনা ঘটে। রাজিব পরিবহনের একটি বাস ঢাকা থেকে খুলনার দিকে যাচ্ছিল। পথিমধ্যে খুলনা থেকে ঢাকাগামী একটি প্রাইভেটকারের সঙ্গে বাসটির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষের মধ্যে একটি মোটরসাইকেলও ঢুকে পড়ে।  

এ ঘটনায় ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে বলে জানান এসআই সিরাজুল। 

তিনি বলেন, হতাহতদের উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা হাসপাতালে নিয়ে গেছে। তবে নিহতরা কে কোন পরিবহনের যাত্রী ছিলেন তা তিনি নিশ্চিত করে বলতে পারেননি।