চট্টগ্রামের কর্ণফুলীর চরপাথরঘাটা ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন না চেয়েও আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন পেয়েছেন উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক আলাউদ্দিন। অথচ নির্বাচন করতে ইচ্ছা বা প্রস্তুতি কোনোটিই নেই তার।

নৌকার মনোনয়ন পাওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে আলাউদ্দিন বলেন, ভুল করে তার নাম এসেছে। দল থেকে তিনি ফরমও সংগ্রহ করেননি, জমাও দেননি।
আলাউদ্দিন এমন দাবি করলেও আওয়ামী লীগের দলীয় সূত্রে জানা গেছে চাঞ্চল্যকর তথ্য। নাম প্রকাশ না করার অনুরোধ করে দক্ষিণ জেলা ও উপজেলা আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা জানিয়েছেন, প্রতিটি ইউনিয়নে দলের মনোনয়ন দিতে সাধারণত তিনজনের নাম কেন্দ্রের কাছে প্রস্তাব করে থাকে দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ। কিন্তু চরপাথরঘাটা ইউপি নির্বাচনের ক্ষেত্রে হয়েছে ব্যতিক্রম। এ ইউনিয়ন থেকে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন দিতে মাত্র দু'জনের নাম প্রস্তাব করেছে দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ; তারা হলেন উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সেলিম হক ও তার অনুসারী যুগ্ম সম্পাদক আলাউদ্দিন।

যদিও চরপাথরঘাটা ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেতে আগ্রহ দেখান অন্তত ৬ জন। তাদের মধ্যে কয়েকজন হেভিওয়েট প্রার্থীও রয়েছেন। তারা হলেন- দক্ষিণ জেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার ইসলাম আহমেদ, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি শাহেদুর রহমান ও বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান ছাবের আহমদ। এলাকায় তাদের জনসমর্থনও বেশ ভালো। কিন্তু সেলিম হকের মনোনয়ন নিশ্চিত করতে তাদের নাম কেন্দ্রের কাছে পাঠানো হয়নি। এ ক্ষেত্রে সংশ্নিষ্টদের ধারণা ছিল, চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করতে আলাউদ্দিন তুলনামূলক কম উপযুক্ত। তাই সেলিমই পেয়ে যাবেন মনোনয়ন।

গত শুক্রবার গণভবনে স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের সভা হয়। সেখানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থিতিতে অষ্টম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ১৪০ ইউপিতে নৌকা প্রতীকের দলীয় প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়, যার মধ্যে কর্ণফুলীর চরপাথরঘাটা ইউপিও ছিল। একই দিন রাতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে চরপাথরঘাটা ইউপির প্রার্থী হিসেবে উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সেলিম হকের নাম ছড়িয়ে পড়ে। তখন নেতাকর্মীরা তাকে অভিনন্দনও জানান।

কিন্তু একই দিন রাত ১টার দিকে আওয়ামী লীগের ফেসবুক পেজে সারাদেশের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করা হলে সেখানে চরপাথরঘাটা ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আলাউদ্দিনের নাম দেখা যায়।

দলীয় সূত্র জানিয়েছে, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক হলেও সেলিমের বিরুদ্ধে বিগত সময়ে জামায়াত-বিএনপির সঙ্গে সখ্যের অভিযোগ আছে। গোয়েন্দা সংস্থাসহ বিভিন্নভাবে এ তথ্য আসার কারণে তার নাম বাদ পড়তে পারে।

শুক্রবার রাতে আলাউদ্দিনের নাম প্রকাশ হওয়ার পর তিনি নিজেই ফেসবুকে পোস্টে লেখেন, 'কেউ বিভ্রান্তি হওয়ার কিছু নেই। প্রিন্টিংয়ে ভুল হয়েছে, নৌকার মাঝি প্রিয় ভাই সেলিম হক।'

আলাউদ্দিন বলেন, 'আমি নৌকার প্রার্থী নই। মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করিনি, জমাও দিইনি।'

আলাউদ্দিনের এসব দাবির পর কর্ণফুলীসহ পুরো দক্ষিণ জেলায় চলছে তোলপাড়। মনোনয়নপ্রত্যাশী ও দক্ষিণ জেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার ইসলাম আহমেদ বলেন, 'আমি মনোনয়নপ্রত্যাশী ছিলাম। কিন্তু অদৃশ্য কারণে আমার ফাইল দপ্তর থেকে গায়েব হয়ে যায়। জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে মূলত ৪-৫ জনের নাম পাঠানোর কথা থাকলেও নাম পাঠিয়েছে দু'জনের। উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সেলিমের সঙ্গে বিগত সময়ে জামায়াত-বিএনপির সখ্যের অভিযোগ থাকাতে তার মনোনয়ন বাতিল হয়েছে।'

কর্ণফুলী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হায়দার আলী রনির দাবি, চরপাথরঘাটা ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মুহাম্মদ সেলিম হক। টাইপিংয়ের ভুলে আলাউদ্দিনের নাম এসেছে।

এ প্রসঙ্গে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফারুক চৌধুরী সমকালকে বলেন, নৌকা প্রতীক পাওয়া আলাউদ্দিন ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিলেন, আবার মুছেও দিলেন। তিনি নৌকা প্রতীক পাওয়ার পরও কেন স্ট্যাটাস দিলেন, কী কারণে দিলেন- তা তাদের বোধগম্য নয়। তার দাবি, তারা উপজেলা থেকে বেশ কয়েকজন যোগ্য প্রার্থীর নাম জেলায় পাঠিয়েছেন।

দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মোছলেম উদ্দিন আহমেদ এমপির ভাষ্য, উপজেলা আওয়ামী লীগ থেকে যাদের নাম পাঠানো হয়েছে, তারা সেভাবে কেন্দ্রে নাম পাঠিয়েছেন। শুধু দু'জনের নাম কেন পাঠানো হলো জানতে চাইলে তিনি বলেন, অন্যান্য উপজেলার ইউপি নির্বাচনে তারা ৫-৬ জনের নামও পাঠিয়েছেন। মূলত উপজেলা থেকে যেভাবে পাঠানো হয়েছে, তারা সেভাবেই পাঠিয়েছেন। কেন্দ্রে পাঠানোর সময় জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকের স্বাক্ষরের পাশাপাশি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকের স্বাক্ষর রয়েছে।

আগামী ১৬ মে চরপাথরঘাটা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন। বাছাই হবে ১৯ মে। মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন ২৬ মে। প্রতীক বরাদ্দ ২৭ মে। ভোট গ্রহণ হবে ১৫ জুন।