মেঘনার ভাঙন থেকে ভোলার রাজাপুর ইউনিয়নকে রক্ষার দাবিতে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। সোমবার দুপুরে সদর উপজেলার রাজাপুর ইউনিয়নের জোড়খাল এলাকার এ মানববন্ধনে হাজারও মানুষ অংশ নেয়। মানববন্ধন শেষে তারা জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবার স্মারকলিপি দেন।

এলাকাবাসী জানিয়েছে, রাজাপুর ইউনিয়নের জোড়খাল থেকে চর মোহাম্মদ আলী পর্যন্ত প্রায় চার কিলোমিটার এলাকায় মেঘনার ভাঙন অব্যাহত রয়েছে। গতবছর বর্ষার ভাঙনে ওই এলাকার সহস্রাধিক হেক্টর জমি ও শত শত ঘরবাড়ি বিলীন হয়ে যায়। ঘরবাড়ি হারা পরিবারগুলো এখনও মানববেতর জীবনযাপন করছে। এবারও বর্ষার শুরুতে ভাঙন দেখা দেওয়ায় এলাকাবাসীর মধ্যে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। এ অবস্থায় চার কিলোমিটার এলাকায় বাঁধ নির্মাণের দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়।

স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়েছে, দেশের উত্তর অঞ্চল থেকে সাগরমুখী পানির চাপে রাজাপুরের বিভিন্ন এলাকায় নদীর গভীরতা বেড়েছে। টেকসই তীর সংরক্ষণের মাধ্যমে এখনই লোকালয় রক্ষা করা না হলে কয়েক হাজার পরিবার বাস্তুভিটা হারা হবে। ঝুঁকির মুখে পড়তে পারে জেলা শহর।

এসময় সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে রাজাপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রেজাউল হক মিঠু চৌধুরী বলেন, প্রাচীন এ জনপদ রক্ষায় এখনই বাঁধ নির্মাণ করা জরুরি। মেঘনার ভাঙনে রাজাপুর বিলীন হলে পুরো ভোলা অস্তিত্ব সংকটে পড়বে। তাই জনস্বার্থে পানি উন্নয়ন বোর্ডকে এখনই কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়ার দাবি জানাচ্ছি।

তবে পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশী মো. হাসানুজ্জামান জানান, ভাঙন পরিস্থিতি দেখে তারা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন।