নাটোরে চাঁদা না দেওয়ায় আহমেদুল হক সজল (৩৯) নামে এক ঠিকাদারকে সন্ত্রাসীরা কুপিয়ে আহত করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে শহরের উত্তর চৌকিরপাড় এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। 

স্থানীয়রা আহত ঠিকাদারকে উদ্ধার করে নাটোর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। ওই ঠিকাদার শহরের আলাইপুর এলাকার প্রয়াত সাবেক পৌর চেয়ারম্যান আমিনুল হক গেদুর ছেলে।

পুলিশ ও ঠিকাদার সমিতি সূত্রে জানা যায়, পৌসভার অধীন রানী ভবানী রাজবাড়ি থেকে উত্তর চৌকিরপাড় এলাকার একটি রাস্তায় পিচ কার্পেটিংয়ের কাজ চলছিল। এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী আজিজুর রহমান ওরফে জামাই আজিজ ও তার ছেলে আশিকুর রহমান ওই কাজ শুরু করার পর থেকেই ঠিকাদারের কাছে চাঁদা দাবি করে আসছিল। মঙ্গলবারও চাঁদা দাবি করে। চাঁদা না দেওয়ায় বাবা-ছেলে ঠিকাদারকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। এ সময় ঠিকাদারের চিৎকারে স্থানীয়রা বাবা-ছেলেকে ধরে পিটুনি দিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। 

আজিজুর রহমান চাঁদা দাবির অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, রাস্তার কাজ নিম্ন মানের হওয়ায় আমি প্রতিবাদ করেছি। চাঁদা দাবি করিনি। সজলকে কারা মেরেছে আমি জানি না।

এদিকে ঠিকাদার সজলের ওপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় জড়িতদের শাস্তি দাবি করেছেন জেলা ঠিকাদার সমিতির নেতারা।

আহত ঠিকাদারকে দেখতে সদর হাসপাতালে গিয়েছেন পৌর মেয়র উমা চৌধুরী জলি।

নাটোর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মরর্তা (ওসি) নাছিম আহমেদ বলেন, ঘটনার খবর পাওয়ার পর সংশ্লিষ্ট সব জায়গায় পুলিশ পাঠানো হয়। গণপিটুনিতে আহত দুজনকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।