সারাদেশের মতো চট্টগ্রামেও শুরু হয়েছে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম। চট্টগ্রামের ১৫ উপজেলায় দুই ধাপে চলবে এবারের হালনাগাদ কার্যক্রম। প্রথম ধাপে শুক্রবার থেকে শুরু হয়েছে ছয়টি উপজেলায় এ কার্যক্রম, যা চলবে ৯ জুন পর্যন্ত।

১০ জুন থেকে শুরু হবে নিবন্ধন কার্যক্রম (ছবি তোলা)। ছয় উপজেলার মধ্যে সীতাকুণ্ড উপজেলায় ২৩ জুন নিবন্ধন কার্যক্রম শেষ হবে। এ ছাড়া সন্দ্বীপে ২৯ জুলাই, কর্ণফুলীতে ১৪ জুলাই, লোহাগাড়ায় ৬ জুলাই, পটিয়ায় ৩ জুলাই এবং আনোয়ারা উপজেলায় ৮ জুলাই শেষ হবে নিবন্ধন কার্যক্রম।

চট্টগ্রাম জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, তথ্য সংগ্রহকারীরা বাড়ি বাড়ি গিয়ে নতুন ভোটারদের তথ্য সংগ্রহ করছেন। এবার ২০০৭ সালের ১ জানুয়ারি বা তার আগে জন্মগ্রহণকারীদের তথ্য সংগ্রহ করা হচ্ছে। অর্থাৎ ১৬ বছর বয়সীদের তথ্যও নেওয়া হচ্ছে। তারা পরে বয়স ১৮ বছর হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ভোটার তালিকায় যুক্ত হবেন ২০২৪ ও ২০২৫ সালে। তথ্য সংগ্রহের পর সংশ্নিষ্ট ব্যক্তিকে নির্দিষ্ট কেন্দ্রে গিয়ে আঙুলের ছাপ, চোখের আইরিশ দিয়ে এবং ছবি তুলে নিবন্ধন কার্যক্রম সম্পন্ন করতে হবে। দ্বিতীয় ধাপে জেলার বাকি ৯টি উপজেলায় এ কার্যক্রম শুরু হবে।

জেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, দ্বিতীয় ধাপে ১ আগস্ট থেকে সিটি করপোরেশনের আওতাভুক্ত ৪১টি ওয়ার্ডে ভোটার তালিকা হালনাগাদের কার্যক্রম শুরু হবে, যা শেষ হবে ১৮ অক্টোবর। ছবিসহ নিবন্ধনের কাজ চলবে ২০ নভেম্বর পর্যন্ত।