ঝড়ে রেলপথের ওপর দুটি স্থানে গাছ উপড়ে পড়ায় শনিবার ঢাকাগামী আন্তঃনগর ট্রেন কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস সাড়ে ৫ ঘণ্টা দেরিতে ছেড়েছে। আর ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা ট্রেনটি গন্তব্যস্থল কুড়িগ্রামে এসে পৌঁছেছে নির্ধারিত সময়ের সাড়ে ৫ ঘণ্টা পর। 

এতে ঢাকাগামী এবং ঢাকা থেকে কুড়িগ্রামগামী যাত্রীদের চরম ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে। 

কুড়িগ্রাম রেলওয়ে ষ্টেশনের ষ্টেশন মাস্টার শামসুজ্জামান জানান, শুক্রবার রাতে ঢাকা থেকে কুড়িগ্রামের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসা আন্তঃনগর ট্রেনটি শনিবার নির্দিষ্ট সময় সকাল সোয়া ৬টার পরিবর্তে সাড়ে ৫ ঘণ্টা দেরীতে সকাল পৌনে ১২ টায় এসে পৌঁছে। পুনরায় ঢাকার উদ্দেশ্যে যাত্রা করে ১২টা ৪০ মিনিটে; যার যাত্রার সময় ছিল সকাল সোয়া ৭টা। 

তিনি জানান, বগুড়ার সান্তাহার ও জয়পুরহাটের আক্কেলপুর ষ্টেশনের পার্শ্ববর্তী এলাকায় বটগাছসহ দুটি বড় গাছ ঝড়ে উপড়ে রেলপথের উপর পড়ে। এতে শুক্রবার রাতে ঢাকা থেকে কুড়িগ্রামগামী কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস পথিমধ্যে আটকা পড়ে। পরে গাছ সরানোর পর ট্রেনটির যাত্রায় এই বিলম্ব ঘটে।

আন্তঃনগর ট্রেন কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস প্রতিদিন সকাল সোয়া ৭টায় কুড়িগ্রাম থেকে যাত্রা শুরু করে বিকেল ৫টা ২০ মিনিটে ঢাকার কমলাপুর স্টেশনে পৌঁছে। আবার কমলাপুর স্টেশন থেকে রাত পৌনে ৯টায় ছেড়ে পরদিন সকাল সোয়া ৬টায় কুড়িগ্রাম এসে পৌঁছায়। বুধবার ট্রেনটির চলাচল বন্ধ থাকে।

কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস ঢাকার কমলাপুর স্টেশনে পৌঁছানো পর্যন্ত কাউনিয়া, রংপুর, বদরগঞ্জ, পার্বতীপুর, জয়পুরহাট, সান্তাহার, মাধনগর, নাটোর ও বিমানবন্দর স্টেশনে যাত্রা বিরতি দিয়ে থাকে।