উল্লাপাড়া ও এর পার্শ্ববর্তী এলাকার ওপর দিয়ে প্রবল ঝড় বয়ে গেছে। এর সঙ্গে বৃষ্টিতে এলাকায় ফল ও ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। মহাসড়ক ও আঞ্চলিক সড়কের অনেক গাছপালা ভেঙে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এ ছাড়া পলল্গী বিদ্যুতের বেশ কয়েকটি খুঁটি ভেঙে যাওয়ায় বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় বিদ্যুৎ সংযোগ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ঝড়বৃষ্টিতে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে জমির পাকা ধান পানিতে ডুবে গেছে। প্রচুর আম পড়ে গেছে। উল্লাপাড়া পাট বন্দরের একটি গুদামঘর ধসে পড়েছে। শাহজাহানপুর-সলপ রেলওয়ে স্টেশন সড়কের একাধিক স্থানে গাছ উপড়ে পড়ায় প্রায় সাত কিলোমিটার ঘুরে বিকল্প পথে চলাচল করে যানবাহন।

সিরাজগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১-এর মহাব্যবস্থাপক রমেন্দ্র নাথ রায় বলেন, ঝড়ে এলাকার অন্তত ২০টি খুঁটি ভেঙে পড়েছে। তার ছিঁড়ে গেছে অন্তত ৪০ স্থানে। ফলে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়। মেরামতের মাধ্যমে পর্যায়ক্রমে বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হচ্ছে।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সুবর্ণা ইয়াসমিন সুমী জানান, ঝড় ও প্রবল বৃষ্টিতে প্রায় ১০০ হেক্টর জমির পাকা ধান ডুবে গেছে। হেলে পড়েছে অনেক জমির উঠতি বোরো ধান ও পাট।

হাটিকুমরুল হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা লুৎফর রহমান বলেন, স্থানীয় বাসিন্দা, পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা দ্রুত ভাঙা গাছ কেটে মহাসড়কে যানবাহন চলাচলের ব্যবস্থা করেন।