কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কুসিক) নির্বাচনে বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতা–কর্মীদের প্রচারণায় অংশ না নেওয়ার জন্য বিশেষ নির্দেশনা জারি করেছে কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা বিএনপি। শনিবার রাত ১০টার দিকে কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা বিএনপির সভাপতি বেগম রাবেয়া চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক আমিন উর রশিদ ইয়াছিন স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কেন্দ্রীয় বিএনপি কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে দক্ষিণ জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. মনিরুল হককে (সাক্কু) আজীবনের জন্য দল থেকে বহিষ্কার করে। একই সঙ্গে মনিরুলের সঙ্গে দলের নেতা–কর্মীদের যোগাযোগ না করার জন্য বলা হয়। এ ছাড়া স্বেচ্ছাসেবক দলের কুমিল্লা মহানগরের সভাপতি মোহাম্মদ নিজাম উদ্দিন কায়সারকে কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক দল থেকে আজীবনের জন্য বহিষ্কার করা হয়। যদিও বৃহস্পতিবার মনোনয়নপত্র বৈধ হওয়ার পর মনিরুল বিকেলে এবং নিজাম দুপুরে দল থেকে পদত্যাগ করেন।

কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়, ‘বিএনপির কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত মোতাবেক বর্তমান সরকার ও নির্বাচন কমিশনের অধীন জাতীয় ও স্থানীয় কোনো নির্বাচনে বিএনপি অংশগ্রহণ করবে না। কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মনিরুল হক ও মোহাম্মদ নিজাম উদ্দিন কায়সার অংশগ্রহণ করায় তাদের বহিষ্কার করা হয়েছে। দলের নেতারা কেউ তাদের পক্ষে নির্বাচনী কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করলে তা দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ ও সংগঠনবিরোধী কার্যক্রম হিসেবে গণ্য হবে এবং তাদের বিরুদ্ধেও শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

আগামী ১৫ জুন কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ইভিএমে ভোট হবে। নির্বাচনের মাঠে সক্রিয় দুই মেয়র প্রার্থী মনিরুল ও নিজাম। ২৬ মে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন। ২৭ মে প্রতীক বরাদ্দ, এরপর প্রচারণা শুরু হবে।