ফরিদপুরে দেশীয় প্রজাতির মাছ এবং শামুক সংরক্ষণ ও উন্নয়ন বিষয়ক প্রকল্পের উদ্বুদ্ধকরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার সকালে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে ফরিদপুর জেলা মৎস্য অধিদপ্তরের আয়োজনে দেশীয় প্রজাতির মাছ এবং শামুক সংরক্ষণ ও উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় জেলা পর্যায়ের উদ্বুদ্ধকরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

উদ্বুদ্ধকরণ সভায় প্রধান অতিধির বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক অতুল সরকার।

সভায় জেলা প্রশাসক বলেন, আমাদের দেশীয় প্রজাতির মাছ বিলুপ্ত হতে যাচ্ছে। এখন দেশীয় মাছ দেশীয় ধারায় নেই, এগুলো চাষাবাদের মাছে পরিণত হয়েছে। সরকার দেশীয় মাছ রক্ষায় নানা পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। দেশীয় প্রজাতির মাছে যে পুষ্টিগুণ, তা ধরে রাখতে সরকারের এই দেশীয় প্রজাতির মাছ এবং শামুক সংরক্ষণ ও উন্নয়ন বিষয়ক প্রকল্পের আওতায় মৎস্য চাষীদের উদ্বুদ্ধকরণ করা হচ্ছে। যাতে আমাদের দেশীয় মাছ না হারায়।

তিনি বলেন, দেশীয় মাছ ও শামুক যেন কোনভাবেই ক্ষতিগ্রস্ত না হয়, তা নিশ্চিত করতে হবে। দেশীয় মাছ যাতে বিলুপ্ত না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। শামুক সংরক্ষণ করে বিদেশে রপ্তানি করা যেতে পারে বলেও তিনি জানান।

ফরিদপুর জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. মনিরুল ইসলামের সভাপতিত্বে, অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, গোপালগঞ্জ মৎস্য অধিদপ্তরের প্রকল্প পরিচালক দেশীয় প্রজাতির মাছ এবং শামুক সংরক্ষণ ও উন্নয়ন প্রকল্পের এস এম আশিকুর রহমান।

এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক এ এস এম আলী আহসান, এফডিএর নির্বাহী পরিচালক মো.আজাহারুল ইসলাম, মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উপপরিচালক মাশউদা হোসেন, সদর উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা শিরীন শারমিন খাঁন প্রমুখ।

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন জেলা মৎস্য অধিদপ্তরের সিনিয়র সহকারী পরিচালক বিজন কুমার নন্দী।

উদ্বুদ্ধকরণ সভায় জেলার বিভিন্ন সরকারি বেসরকারি দপ্তরের কর্মকর্তারা, প্রকল্পের আওতাধীন ভাঙ্গা ও সালথা দুইটি উপজেলার মৎস্য চাষীরা এবং প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।