ইউক্রেনের এক বেসামরিক নাগরিককে হত্যার দায়ে দেশটির এক আদালত প্রথমবারের মতো যুদ্ধাপরাধী হিসেবে দায়ী করে এক রাশিয়ান সেনাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে। রাশিয়ান এই সেনা হলেন- ভাদিম শিশিমারিন। তিনি ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধে ট্যাঙ্ক কমান্ডার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন।পরে ইউক্রেনীয় সেনাদের হাতে আটক হন।  

সোমবার ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি অনলাইন এই খবর প্রকাশ করেছে। ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভে এই বিচার কাজ অনুষ্ঠিত হয়েছে। রাশিয়ান এই সেনাকে দণ্ডিত করার মাধ্যমে এই প্রথমবার চলমান রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধে বেসামরিক নাগরিক হত্যার ঘটনায় যুদ্ধাপরাধ মামলার রায় ঘোষিত হলো। 

ভাদিম শিশিমারিনের বিরুদ্ধে গত ২৮ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় চুপাখিভকা গ্রামের ইউক্রেনীয় নাগরিক ওলেক্সান্ডার শেলিপভকে (৬২) গুলি করে হত্যার অভিযোগ আনা হয়েছিল। শিশিমারিন তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ স্বীকার করে বলেন, তিনি কর্তৃপক্ষের নির্দেশ পালন করছিলেন। তিনি নিহত ব্যক্তির বিধবা স্ত্রীর কাছে ক্ষমা চান। 

আরও বেশ কয়েকজন রাশিয়ান সেনার বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধের অভিযোগ তদন্ত করছে ইউক্রেন এবং দেশটি অভিযোগ করেছে, ইউক্রেনে রাশিয়ার সামরিক অভিযান শুরুর পর ১১ হাজারের বেশি যুদ্ধাপরাধের ঘটনা ঘটেছে। তবে মস্কো এই অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে।