মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উন্নয়নের বাতিঘর। তিনি একজন মানুষ রূপে একজন মহামানবী। তিনি আছেন বলেই বাংলাদেশে কোথাও আজ নোঙ্গরখানা খুলতে হয় না, কোনো লোক না খেয়ে মারা যায় না। শেখ হাসিনার আমলে একজন মানুষও গৃহহীন থাকবে না। তাদের জমিসহ পাকা দালান ঘর করে দিচ্ছেন শেখ হাসিনা।

সোমবার বিকেলে পিরোজপুর সদর উপজেলার কলাখালীতে এক উন্নয়ন সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সমাবেশে মন্ত্রী বলেন, শেখ হাসিনা পদ্মা সেতু, বেকুটিয়া সেতু মেট্রোরেলসহ দেশের রাস্তাঘাট, ব্রীজ কালভার্ট, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ভবন নির্মাণ, আধুনিক মডেল মসজিদ নির্মাণসহ অবকাঠামো উন্নয়ন করার পাশাপাশি দেশের মানুষের আর্থ সামজিক উন্নয়নে কাজ করে চলছেন। আজ দেশের রাস্তাঘাটে ভিক্ষুকের চাপ নেই। তিনি ভিক্ষুকদেরও পূর্নবাসনে প্রকল্প নিয়েছেন। প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর উন্নয়নে নানামুখী প্রকল্প হাতে নিয়েছেন।

স্থানীয় পুখুরিয়া বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এনায়েত হোসেন খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক আহ্বায়ক অ্যাভোকেট চন্ডিচরণ পাল, সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান এস এম বায়েজিদ, কলাখালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মো. দিদারুজ্জামান শিমুল, কলাখালী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মো. হেদায়েতুল ইসলাম, টোনা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মো. আনোয়ার হোসেনসহ আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ।

এর আগে কলাখালী ইউনিয়নের দাউদপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, দক্ষিণ রাজারকাঠী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, বানেশ্বরপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নতুন ভবন উদ্বোধন, কলাখালী থেকে রানীপুর ঘাট ভায়া ঘোপেরহাট এবং টোনা হাইস্কুল রাস্তার খালের উপর আরসিসি গার্ডার ব্রিজ নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন এবং হুলারহাট-নগরবাড়ি-লেবুবাড়ি সড়কের উদ্বোধন করেন মন্ত্রী।

এদিন সকালে নাজিরপুর উপজেলায় উপকূলীয় চরাঞ্চলে সমন্বিত প্রাণিসম্পদ উন্নয়ন প্রকল্পের সুফলভোগীদের মাঝে উপকরণ বিতরণ করেন। অনুষ্ঠানে ৪ হাজার ৫৫৪ জন উপকারভোগীর মাঝে হাঁস, মুরগী, ভেড়া ও কবুতর বিতরণ করা হয়।