ঢাকার ধামরাইয়ে বারবাড়িয়া এলাকায় তরুণ-তরুণীকে রাতভর আটকে রেখে তাদের স্বজনদের কাছে বখাটেরা ১ লাখ ৮০ হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। এ ঘটনায় র‌্যাব-৪ এর সদস্যরা চার বখাটেকে আটক করে তাদের ধামরাই থানায় সোপর্দ করে।

আটকরা হলেন বারবারিয়া গ্রামের সাত্তার মোল্লার ছেলে আবু বক্কর সিদ্দিক মোল্লা, চারিপাড়া গ্রামের মৃত আজিজুল হকের ছেলে আরিফুল ইসলাম, দক্ষিণ হাতকোড়া গ্রামের মৃত আবদুল হকের ছেলে আলামিন ও কৃষ্ণপুরা গ্রামের মহর আলীর ছেলে আরিফুজ্জামান পিন্টু।

র‌্যাব সূত্রে জানা গেছে, মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ার এলাকার দুই তরুণ-তরুণী সোমবার ধামরাইয়ের গাঙ্গুটিয়া ইউনিয়নের বারবাড়িয়া এলাকায় বেড়াতে যায়। এ সময় স্থানীয় চারজন আবু বক্কর সিদ্দিক মোল্লা, আরিফুল ইসলাম, আলামিন ও পিন্টু তাদের বারবাড়িয়ার মোকলেছুর রহমানের বাড়িতে সারারাত আটকে রেখে ওই তরুণ-তরুণীর ছবি তুলেন।

এরপর ওই ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে তাদের স্বজনদের কাছে ১ লাখ ৮০ হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবি করে বলে জানান ওই তরুণের ভাই সানোয়ার হোসেন।

খবর পেয়ে র‌্যাব-৪ এর সদস্যরা মঙ্গলবার সকালে অভিযান চালিয়ে চারজনকে আটক করে। এ বিষয়ে র‌্যাব-৪ কোম্পানি কমান্ডার আরিফ হোসেন জানান, আটকদের বিরুদ্ধে ধামরাই থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।