বিএনপির স্থায়ী কমিটির সিনিয়র সদস্য ড. খন্দকার মোশারফ হোসেন বলেছেন, বর্তমান সরকার দেশের বাইরে বাংলাদেশকে হাইব্রিড দেশ হিসেবে পরিচয় করে দিচ্ছেন। কিন্তু দেশের মানুষ আজকে শিকলবন্দি। দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি, গণতন্ত্র নেই, মানুষের অধিকারও নাই। মানুষ এখন দিশেহারা।

বৃহস্পতিবার (২৬ মে) বিকেলে লালমনিরহাট শহরের বড়বাড়ি শহীদ আবুল কাশেম মহাবিদ্যালয় মাঠে রংপুর জেলা বিএনপির আয়োজনের জিয়া স্মৃতি ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সিনিয়র সদস্য ড. খন্দকার মোশারফ হোসেন আরও বলেন, এই গায়ের জোরের সরকার একটি গণহত্যা মামলায় তারেক রহমানকে সাজা দিয়ে বিদেশে থাকতে বাধ্য করেছে। গায়ের জোরের সরকারের পদত্যাগ, নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকার, গণতন্ত্রের মা খালেদা জিয়ার মুক্তি ও তারেক রহমানকে মুক্ত করে স্বাধীনভাবে রাজনীতি করার অধিকার নিশ্চিতে দাবিতে লালমনিরহাট থেকে গনআন্দোলন শুরু করা হলো। আপনারা গনআন্দোলন চালিয়ে যাবেন। বিজয় আমাদেরই হবে।

ড. খন্দকার মোশারফ হোসেন বলেন, বিএনপির নেতৃত্বে একটি গণ অভ্যুত্থান গড়ে তোলা হবে। আমাদের দাবি হবে, গায়ের জোরের সরকারের পদত্যাগ, দেশনেত্রীকে মুক্তি, গণতন্ত্র ও নিরপেক্ষ সরকার গঠন ও তারেক রহমানকে মামলা থেকে মুক্তি দিয়ে দেশে ফিরে আনার আন্দোলন।

ঈদুল ফিতরের পরে আন্দোলনে যাবে বিএনপি। ঈদ শেষ হলেও আন্দোলন শুরু হয়নি –সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নে এড়িয়ে যান ড. খন্দকার মোশারাফ হোসেন। শেষে সাংবাদিকদের সাথে কথাও বলেননি বিএনপির এ নেতা।

বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক উপমন্ত্রী অধ্যক্ষ আসাদুর হাবিব দুলু’র সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন ঢাকার সাবেক মেয়র প্রয়াত সাদেক হোসেন খোকার ছেলে প্রকৌশলী ইশরাক হোসেন, রংপুর জেলা বিএনপির আহ্বায়ক সাইফুল ইসলাম, রংপুর মহানগর বিএনপি’র আহ্বায়ক সামসুজ্জামান সামু, লালমনিরহাট জেলা বিএনপির সম্পাদক হাফিজুর রহমান বাবলা, সদর বিএনপির আহ্বায়ক একেএম মমিনুল হকসহ রংপুর বিভাগের বিএনপির নেতার্কমীরা।