কলকাতায় আবারও আত্মহত্যা টলি অভিনেত্রীর। এই নিয়ে বিগত ১০ দিনের মধ্যে টলিউডের তিনজন অভিনেত্রীর রহস্যজনক মৃত্যুতে আতঙ্ক ও শোকের ছায়া টলিপাড়ায়। পল্লবী দে এবং মডেল বিদিশা দে মজুমদারের পর এবার টলিপাড়ার আরেক অভিনেত্রী মঞ্জুষা নিয়োগীর বাড়ি থেকে তার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হলো।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, বিদিশার ঘনিষ্ঠ বন্ধু ছিলেন মঞ্জুষা। তার মায়ের দাবি, বিদিশার মৃত্যুর পরই হতাশায় ভুগতে শুরু করেছিলেন অভিনেত্রী। তার জেরেই আত্মহত্যা।

যদিও পুলিশ এখনও এই ঘটনায় কোনও সুইসাইড নোট পায়নি। অস্বাভাবিক মৃত্যুর তদন্ত শুরু হয়েছে। মঞ্জুষা টলিউডে কাজ করছেন বহু দিন ধরেই। একটি টিভি চ্যানেলে ধারাবাহিকে অভিনয় করতেন। পাশাপাশি থিয়েটারেও অভিনয় করতেন মঞ্জুষা।

বিদিশার মৃত্যুর ঠিক দু’দিনের মাথায় তার বন্ধু মঞ্জুষারও এই অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনায় কোনও যোগসূত্র আছে কি না, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। মঞ্জুষার মৃত্যুর নেপথ্যেও তেমন কোনও ঘটনা রয়েছে কি না, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

আত্মহত্যার ঘটনায় অভিনেত্রী ও মডেলার বিদিশা দে এর মৃত্যুর প্রসঙ্গে অভিনেত্রী সংসদ সদস্য নুসরাত জাহান বলেছিলেন, দ্রুত শিখরে পৌঁছানো উচ্চ আকাঙ্ক্ষা মানসিক যন্ত্রণার জন্য মৃত্যু হচ্ছে অভিনেত্রী ও মডেল দের। উচ্চ আকাঙ্ক্ষা অনুয়ায়ী শিখরে পৌঁছাতে না পেরে মানসিক যন্ত্রণা থেকে মুক্তি পেতে আত্মহত্যা পথ বেছে নিচ্ছে; এটা খুবই দুঃখের বিষয়। এটা যেন কেউ না করে।