কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনী প্রচারণার শুরুতেই স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী মো. মনিরুল হক সাক্কুর পোস্টার ও ব্যানার ছিড়ে ফেলার অভিযোগ উঠেছে মুখোশ ও হেলমেট পরিহিত একদল যুবকের বিরুদ্ধে।

শুক্রবার গভীর রাতে নগরীতে সাটানো এসব পোস্টার ও ব্যানার ছিড়ে ফেলা হয়। এছাড়াও একই রাতে প্রচারণাকালে দুইটি মাইক ভাংচুর করা হয় । শনিবার দুপুরে আনুষ্ঠানিক প্রচারণায় নেমে সাক্কু সাংবাদিকদের কাছে এসব অভিযোগ করেন।

সাক্কু বলেন, নগরীর কান্দিরপাড় থেকে চকবাজার পর্যন্ত সহস্রাধিক পোস্টার এবং বেশ কয়েকটি ব্যানার ছিড়ে ফেলেছে দুষ্কৃতকারীরা। আমরা প্রত্যক্ষদর্শীদের সাথে কথা বলে জানতে পেরেছি, শুক্রবার গভীর রাতে ১০/১২ টি মোটরসাইকেলে করে আসে দুর্বৃত্তরা। তারা কাচি দিয়ে পোস্টার ও ব্যানার ছিঁড়ে ফেলে। এ সময় তাদের মাথায় হেলমেট এবং কেউ কেউ মুখোশ পরা ছিল।

সাক্কু আরও বলেন, বিষয়টি আমরা রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মৌখিকভাবে জানিয়েছি। অভিযোগ কার দিকে- এমন প্রশ্নের জবাবে সাক্কু বলেন, যে রাস্তায় এ ঘটনা সেখানে তো অনেক সিসি ক্যামেরা আছে, প্রশাসন ইচ্ছে করলে তাদের শনাক্ত করতে পারে। এ বিষয়ে তিনি লিখিত অভিযোগ করবেন বলে জানিয়েছেন।

এদিকে প্রচারণার প্রথম দিনে সাক্কু নগরীর রাজাগঞ্জ, কাপড়িয়াপট্টি, চকবাজার,মনোহরপুর  ও কান্দিরপাড় এলাকায় কর্মী-সমর্থদের নিয়ে প্রচারণা চালান।

রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. শাহেদুন্নবী চৌধুরী জানান, মোবাইল ফোনে প্রার্থীর পক্ষ থেকে বিষয়টি তাদেরকে জানানো হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। ঘটনাটি লিখিতভাবে জানাতে সংশ্লিষ্ট মেয়র প্রার্থীকে বলা হয়েছে।

আগামী ১৫ জুন কুমিল্লা সিটির ১০৫ ভোট কেন্দ্রে ইভিএমে ভোট নেওয়া হবে। এখানে নৌকা প্রতীক পেয়েছেন মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরফানুল হক রিফাত। এছাড়া স্বতন্ত্র পদে নিজাম উদ্দিন কায়সার কর্মী-সমর্থদের নিয়ে প্রচারণা চালাচ্ছেন নগরীর বিভিন্ন অঞ্চলে।