যুবলীগে পদ পেতে কাউকে কোনো উপঢৌকন দিতে হবে না বলে মন্তব্য করেছেন সংগঠনটির চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ। রোববার হাটহাজারীর পার্বত্য স্কুল মাঠে চট্টগ্রাম উত্তর জেলা যুবলীগের সম্মেলনের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি।

বেলা সাড়ে ১১টার দিকে এ সম্মেলন শুরু হয়। বেলুন উড়িয়ে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন কেন্দ্রীয় যুবলীগ চেয়ারম্যান।

ফজলে শামস পরশ বলেন, কোনো সাংগঠনিক পদ ব্যক্তিগত পকেট ভারী করার জন্য নয়। পদ-পদবির জন্য আমাদের উপঢৌকন দিতে হবে না। অর্থের বিনিময়ে পদ দেওয়া হবে না। অবৈধ উপার্জনের হাতিয়ার হিসেবে যেন যুবলীগকে ব্যবহার না করা হয়।

যুবলীগ চেয়ারম্যান বলেন, একটা শুদ্ধি অভিযানের মধ্য দিয়ে আমাদের কমিটি এসেছে। আপনারা মূল্যায়ন করবেন, আমরা মনমানসিকতায় পরিবর্তন আনতে পেরেছি কি-না। যুবলীগ মানবিক যুবলীগে পরিণত হয়েছে কি-না।

নেতাদের উদ্দেশ্য করে পরশ বলেন, যুবলীগের আইন সম্পাদক হবেন, নেতাকর্মীদের আইন সেবা দেবেন না, স্বাস্থ্য সম্পাদক হবেন, নেতাকর্মীদের স্বাস্থ্যের খবর রাখবেন না, তা হতে পারে না। যুবনেতাদের সুশৃঙ্খল হতে হবে।

আগামী জাতীয় নির্বাচন নিয়ে তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুকন্যার অর্জন ও সফলতা জনগণের মধ্যে তুলে ধরতে হবে। মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে। একদিকে আগামীর বাংলাদেশ গড়ার নেতৃত্ব দেবে যুবলীগ, অন্যদিকে লড়াই-সংগ্রামও জারি রাখতে হবে।

ত্যাগী নেতাদের যুবলীগের কমিটিতে স্থান দেওয়ার পরামর্শ দেন পরশ। বলেন, আমাদের উচিত ত্যাগী নেতাদের মূল্যায়ন করা। এটা আমাদের নৈতিক দায়িত্ব। দলের মধ্যে ভুঁইফোড়দের রামরাজত্ব বন্ধ করতে হবে। ত্যাগী ও জেল-জুলুম সহ্য করা নেতাদের মূল্যায়ন করতে হবে।

সম্মেলনে ভার্চুয়ালি বক্তব্য রাখবেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল।

সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও সংসদ সদস্য মোশাররফ হোসেন, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ।