চট্টগ্রামে এবার জলাবদ্ধতা নিরসন প্রকল্পের কাজ চলাকালে প্রাণ গেছে এক শিশুর। সোমবার বিকালে নগরের আকবরশাহ থানার শহীদ লেইন এলাকায় রোলার চাপায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত শিশুটি ওই এলাকার রিপন ও নার্গিস দম্পতির ছেলে আরাফাত।

এ ঘটনায় রোলার চালক আব্দুল মবিন ও এক্সকাভেটর চালক কাউসারকে আটক করেছে পুলিশ। এর আগে গত ১৭ মার্চ জলাবদ্ধতা নিরসন প্রকল্পের কাজ চলাকালে লোহারপাত পড়ে এক রিকশা চালকের মৃত্যু হয়েছিল। প্রকল্প এলাকায় একের পর এক মৃত্যুর ঘটনা ঘটলেও নাগরিক সুরক্ষায় কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, নগরের আকবরশাহ থানার শহীদ লেইন এলাকায় জলাবদ্ধতা নিরসন প্রকল্পের আওতায় নালা সম্প্রসারণের কাজ চলছে। প্রকল্প এলাকায় নির্মাণসামগ্রী নিয়ে যেতে রোলার দিয়ে রাস্তা সমতলের কাজ চলছিল। রোলার চালক আবদুল মবিন নিচে দাঁড়িয়ে ছিলেন।

এক্সকাভেটর চালক কাউসার রোলারটি চালাচ্ছিলেন। এ সময় শিশুটি রোলারের নিচে চাপা পড়ে মারা যায়। স্থানীয় লোকজন রোলার ও এক্সকাভেটর চালককে আটক করে পুলিশকে খবর দেয়। এ সময় প্রকল্প এলাকায় কোনো সুরক্ষা ব্যবস্থা ছিল না বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা। কাজটি করছিলেন ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান সিপিডিএল।

আকবরশাহ থানার ওসি ওয়ালী উদ্দিন আকবর সমকালকে বলেন, ‘শিশু মৃত্যুর ঘটনায় রোলার ও এক্সকাভেটর চালককে আটক করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।’

জলাবদ্ধতা নিরসন প্রকল্পের পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল শাহ আলীকে কল দেওয়া হলেও তিনি রিসিভ করেননি। সিডিএর প্রধান প্রকৌশলী হাসান বিন শামসকে ফোন দেওয়া হলে তিনি এ বিষয়ে কিছু জানেন না বলে জানান।

প্রসঙ্গত, নগরের জলাবদ্ধতা নিরসনে সাড়ে পাঁচ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে প্রকল্পটি চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (সিডিএ)।