নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের বারদি ইউনিয়নের বারদি বাজারে ইউনিয়ন বিএনপির কার্যালয়সহ ৫ দোকানে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। বুধবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

খবর পেয়ে সোনারগাঁ ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট প্রায় দেড় ঘণ্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। আগুন নিয়ন্ত্রণে আসার আগেই বিএনপি কার্যালয়সহ ৫ দোকানের মালপত্র পুড়ে যায়। আগুনে প্রায় ১৫ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন ক্ষতিগ্রস্তরা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রাত সাড়ে ১১টার দিকে বারদি ইউনিয়ন পরিষদের পাশে ইউনিয়ন বিএনপির কার্যালয়ে হঠাৎ করে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট হয়ে আগুন লাগে। এ সময় আগুন চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে। পাশের আবু বকর সিদ্দিকের দোকান, নাসিরউদ্দিনের দোকান ও আবুল হোসনে গোডাউনসহ ৫টি দোকানে আগুন ছড়িয়ে পড়ে।

খবর পেয়ে সোনারগাঁ ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন কর্মকর্তা সুজন কুমার হালদারের নেতৃত্বে দুটি ইউনিট প্রায় দেড় ঘণ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। তবে মুহূর্তের মধ্যে বিএনপির কার্যালয়ের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র, আসবাবপত্র, দোকানগুলোতে থাকা মোম, আগরবাতি, সন্দেশ, প্লাস্টিকের মালামাল ভস্মীভূত হয়। 

ক্ষতিগ্রস্ত আবু বকর সিদ্দিক জানান, এ দোকানই তাদের সম্বল। এ দোকানের আয় দিয়ে তাদের সংসার চলে। আগামী শুক্রবার থেকে শুরু হতে হওয়া লোকনাথ ব্রহ্মচারীর তিরোধান উৎসবে বিক্রির জন্য মালপত্র মজুত করেছিলাম। এগুলো পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

সোনারগাঁ ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন কর্মকর্তা সুজন কুমার হালদার জানান, বৈদ্যুতিক ত্রুটি থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। একটি গোডাউনে প্লাস্টিকপণ্য থাকায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সময় লেগেছে। আগুনে প্রায় ১৫ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে ব্যবসায়ীরা দাবি করেন।