প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অধীন বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষ (বেজা) বাস্তবায়নাধীন কক্সবাজারের টেকনাফ 'সাবরাং ট্যুরিজম পার্ক'র ভূমি ভরাটের বালু অবৈধভাবে বিক্রির দায়ে ফয়সাল ডিউক নামের এক ব্যক্তিকে দুই লাখ পঞ্চাশ হাজার টাকা জরিমানা এবং অনাদায়ে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

দণ্ডপ্রাপ্ত ফয়সাল ডিউক ট্যুরিজম পার্কে বালু ভরাটের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না হারবার কোম্পানির একজন কর্মকর্তা।

রোববার সকালে টেকনাফ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. এরফানুল হক চৌধুরী বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অধীন বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষ (বেজা) কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন সাবরাং ট্যুরিজম পার্কে বালু ভরাটের কাজ পায় চায়না হারবার নামে একটি প্রতিষ্ঠান। কিন্তু ওই প্রতিষ্ঠানের এসব কাজ তদারকির দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যক্তি ফয়সাল ডিউক সেখান থেকে অবৈধভাবে অন্যত্র বালু বিক্রি করছেন এমন অভিযোগ পাওয়া যায়। পরে রোববার ঘটনাস্থলে অভিযান পরিচালনা করে অভিযোগের সত্যতা প্রমাণিত হওয়ায় তাকে দুই লাখ পঞ্চাশ হাজার টাকা জরিমানা এবং অনাদায়ে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

স্থানীয়রা জানায়,  ট্যুরিজম পার্কের বালু ভরাটের জন্য চায়না হারবার কোম্পানিকে নিয়োগ দেয় কর্তৃপক্ষ। কিন্তু সরকারের এ প্রকল্পের জন্য সরবরাহ করা বালু অন্যত্র অবৈধভাবে বিক্রি করে লাখ লাখ টাকার বাণিজ্য করে আসছিল  চায়না হারবারের কর্মকর্তা ফয়সল ডিউকের নেতৃত্বে একটি সংঘবদ্ধ চক্র। সর্বশেষ চক্রটি সড়ক সংস্কারের একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকে ১০০ ট্রাক বালু বিক্রির চুক্তি করে। তার মধ্যে ৪০ ট্রাক বালু সরবরাহের পর চক্রটি অভিযানে ধরা পড়ে।

প্রসঙ্গত, সাবরাং অর্থনৈতিক জোন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের বাস্তবায়নাধীন একটি প্রকল্প। শাহপরীর দ্বীপ সংলগ্ন চর থেকে বালু উত্তোলন করে জোনের প্রায় এগারোশ একরের জমির ভরাট কাজ করা হচ্ছে।