জয়পুরহাটের পাঁচবিবিতে নিখোঁজের একদিন পর পুকুর থেকে হাসানুজ্জামান হাসু (২৬) নামে এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। 

রোববার পাঁচবিবি উপজেলার বাগজানা ইউনিয়নের ভীমপুর এলাকার একটি পুকুর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। 

পুলিশ ধারণা করছে, ওই যুবককে হত্যার পর পুকুরে মরদেহ ফেলে যেতে পারে দুর্বৃত্তরা। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন পাঁচবিবি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পলাশ চন্দ্র দেব। 

নিহত হাসানুজ্জামান হাসু পাঁচবিবি উপজেলার ভীমপুর গ্রামের শফিকুল ইসলাম ছেলে।

বাগজানা ইউপি চেয়ারম্যান নাজমুল হোসেন বলেন, হাসু গত শনিবার সকালে বাড়ি থেকে বের হওয়ার পর রাতে আর ফিরে আসেননি। রাতে পরিবারের লোকজন অনেক খোঁজাখুজিও করেছে। এরই মধ্যে রোববার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে হাসুর মরদেহ পুকুরে ভাসতে দেখে স্থানীয়রা। পরে পুলিশে খবর দেওয়া হয়। ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

নিহত হাসুর ছবি বুকে নিয়ে হতভাগ্য পিতা শফিকুল ইসলাম বলেন, স্থানীয় এক যুবক আমার ছেলের কাছ থেকে টাকা পেত এবং বারবার টাকার জন্য চাপও দিত। সময়মত টাকা দিতে না পারার কারণে তারা এমন কাজ করতে পারে।