টিয়া পাখি চুরি করার অভিযোগে মাগুরার শ্রীপুরে এক শিশুকে রশি দিয়ে গাছে ঝুলিয়ে বেদম মারপিট করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। শিশুটির বয়স আনুমানিক ১২ বছর। শারীরিক নির্যাতনের সেই ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। 

গত বুধবার (১৫ জুন) আমলসার ইউনিয়নের পশ্চিম আমলসার গ্রামে নির্যাতনের এই ঘটনা ঘটেছে। 

ভাইরাল ভিডিওর সূত্র ধরে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, নির্যাতনকারীর মো. নূর ইসলাম আমলসার গ্রামের বশির শেখের ছেলে। 'পাখি চুরি করিনি' বলে হাউমাউ করে কান্নাকাটি করেও শিশুটি তার নির্যাতন থেকে রেহাই পায়নি।

নির্যাতনের শিকার শিশুর নাম জীবন বিশ্বাস। তার বাবা শাহাবুদ্দিন বিশ্বাস পেশায় ভ্যানচালক। তিনি এ ঘটনায় বিচার দাবি করেছেন।

ভিডিওতে দেখা গেছে, নির্যাতনকারী নূর ইসলাম শিশুটিকে বেদম পেটাচ্ছেন আর তার আশপাশে বিভিন্ন বয়সী নারী-পুরুষ তা বসে বসে দেখছেন। 

এ বিষয়ে মতামত জানতে নূর ইসলামের বাড়িতে গিয়ে তাকে পাওয়া যায়নি। তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটিও বন্ধ পাওয়া গেছে। স্থানীয়রা ধারণা করছেন, বিপদ আঁচ করতে পেরে তিনি বাড়ি থেকে পালিয়েছেন।

এদিকে, সাংবাদিকদের কাছ থেকে তথ্য পেয়ে থানা পুলিশ এ বিষয়ে নড়েচড়ে বসেছে।

জানতে চাইলে শ্রীপুর থানার ওসি প্রিটন সরকার আজ শুক্রবার সন্ধ্যায় বলেন, আমরা এখন এলাকায় এসেছি। ভিকটিমের পরিবারের সাথে কথা বলছি। অভিযুক্ত নূর ইসলামের মোবাইল বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে। তাকে খুঁজে বের করার চেষ্টা করছি।