পাহাড়ি ঢল ও ভারি বৃষ্টিতে জামালপুরে যমুনা ও ব্রহ্মপুত্রসহ অন্যান্য নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত আছে। গত ২৪ ঘণ্টায় যমুনার পানি বাহাদুরাবাদ ঘাট পয়েন্টে বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমার ৪৭ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন জানান, বন্যায় যমুনা, ব্রহ্মপুত্র, দশানী ও জিঞ্জিরাম নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় জেলার ইসলামপুর, দেওয়ানগঞ্জ, বকশীগঞ্জ ,মেলান্দহ ও মাদারগঞ্জ উপজেলার ৩০টি ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চলে পানি ঢুকেছে। এতে প্রায় ৫০ হাজার মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়েছে।

স্থানীয়রা জানান, দুর্গত এলাকায় বিশুদ্ধ পানি ও গো খাদ্যের সংকট দেখা দিয়েছে।

বন্যা দুর্গত এলাকায় ৮০টি মেডিক্যাল টিম কাজ করছে বলে জানিয়েছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।

ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন জানান,  প্রতিটি উপজেলায় ৫০ মেট্রিক টন চাল, নগদ ১ লাখ টাকা ও ৪ হাজার প্যাকেট শুকনো খাবার বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।