রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে পদ্মা নদীর দুর্গম চরে চরমপন্থীদের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে আক্কাছ বেপারী নামের এক আওয়ামীলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার দেবগ্রাম ইউনিয়নের রাখালগাছি চরে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আক্কাছ বেপারি পাশ্ববর্তী পাবনা জেলার আমিনপুর উপজেলার ঢালারচর ইউনিয়নের ধারাই গ্রামের মৃত মৈজদ্দিন বেপারীর ছেলে ও ঢালারচর ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি। তবে তিনি চরমপন্থী সংগঠনের সাথে জড়িত ছিলেন বলে অভিযোগ রয়েছে। চরমপন্থীদের আভ্যন্তরীণ কোন্দলে তাকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা পুলিশ ও স্থানীয়দের।

দেবগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হাফিজুল ইসলাম জানান, মঙ্গলবার বেলা ১২ টার দিকে আক্কাছ আলী তার ইউনিয়নের রাখালগাছি এলাকায় নদীর তীরে অবস্থান করছিলেন। এ সময় একটি ট্রলারযোগে এসে সশস্ত্র দুর্বৃত্তরা তার উপর হামলা চালায়। তারা আক্কাছ আলীকে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু নিশ্চিত করে পুনরায় ট্রলারযোগে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।

গোয়ালন্দ ঘাট  ওসি স্বপন কুমার মজুমদার বলেন, ঘটনাটি অত্যন্ত দুর্গম এলাকার। খবর পাওয়ার পর লাশ উদ্ধার করার জন্য সেখানে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। নিহত আক্কাস আলী নিষিদ্ধ ঘোষিত  চরমপন্থী সংগঠনের সাথে জড়িত ছিলেন। আভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বে তাকে চরমপন্থীরা হত্যা করেছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে বলে জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।