সিলেটের বিয়ানীবাজার উপজেলার কুড়ারবাজার ইউনিয়নের বৈরাগীর খশির এলাকায় ঘরের ভেতরে ভাসমান অবস্থায় এক বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার করেছেন স্ত্রী ও সন্তানরা। বৃহস্পতিবার সকালে আশ্রয়কেন্দ্রে থেকে বাড়ি গিয়ে স্ত্রী ও সন্তানরা ঘরের ভেতরের পানিতে বৃদ্ধের ভাসমান লাশ দেখতে পান। পরে স্থানীয়দের সহায়তা লাশটি বৈরাগীবাজার সিনিয়র মাদ্রাসায় নিয়ে আসেন।

নিহতের নাম বাহার উদ্দিন (৬০)। তিনি তিন কন্যা ও দুই পুত্রের বাবা ছিলেন। বুধবার রাতে বৈরাগীবাজারের যাওয়ার কথা বলে আশ্রয়কেন্দ্রে থেকে রাত ৯টার দিকে বের হয়ে যান। রাতে আশ্রয়কেন্দ্রে ফিরে না আসায় সকালে বাড়িতে ছুটে যান স্ত্রী। গিয়ে দেখেন স্বামীর লাশ ঘরের পানিতে পড়ে আছে।

স্থানীয় অধিবাসী মানিক উদ্দিন বলেন, স্ত্রী-সন্তানদের আশ্রয়কেন্দ্রে রেখে রাতের কোনো একসময় নিজ বাড়িতে চলে আসেন বাহার উদ্দিন। অনেক বেলা হলেও তিনি আশ্রয়কেন্দ্রে না যাওয়ায় স্ত্রী ছুটে এসে দেখেন ঘরের ভেতরে মেঝেতে তার লাশ ভাসছে।

ঘরে বন্যার পানি ওঠে যাওয়ায় বুধবার রাতে বৈরাগী উচ্চ বিদ্যালয়ের আশ্রয়কেন্দ্রে স্ত্রী ও সন্তানদের উঠেছিলেন বৃদ্ধ বাহার উদ্দিন। রাতে আশ্রয়কেন্দ্র থেকে নিজ ঘরের চলে আসেন। রাতে বেলার ঘরের খাটে ঘুমন্ত অবস্থায় কোনো একসময় নিচে পড়ে গেলে তার মৃত্যু হয়েছে বলে স্থানীয়রা ধারণা করছেন।

বিয়ানীবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হিল্লোল রায় বলেন, বৃদ্ধ বাহার উদ্দিনের মৃত্যুর বিষয়টি জেনেছি। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।