গাজীপুরের কাপাসিয়ায় শিশুকন্যাসহ মায়ের বানার নদীতে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যার তিন দিন পর শিশুর অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করেছে নৌ-পুলিশ।

কাপাসিয়া থানা জানিয়েছে, প্রায় ৭৬ ঘণ্টা পর বুধবার রাতে পলাশের কাছে শীতলক্ষ্যা নদীতে শিশু মোরশিদা বেগমের মরদেহ ভেসে উঠে, যা ঘটনাস্থল থেকে প্রায় ৩২ কিলোমিটার দূরে। পরে স্বজনরা এসে শিশুর মৃতদেহ শনাক্ত করে।

গত রোববার মা আরিফা খাতুন শিশু মোরশিদাকে নিয়ে বানার নদীতে ঝাঁপ দেন। নৌ-পুলিশের ডুবুরিদের দুদিনের উদ্ধার তৎপরতায় শিশু বা মায়ের হদিস মেলেনি। মা আরিফা এখনও নিখোঁজ রয়েছেন।